অতিরিক্ত লালসার কারণেই বাড়ছে নৃশংস হত্যাকাণ্ড

0
171

হাসান জাকির :

সমাজ ব্যবস্থার পরিবর্তন ও অতিরিক্ত লোভ লাসলার কারণেই বাড়ছে নৃশংস হত্যাকাণ্ড। পরিবারের অন্যান্য সদস্যের চোখের সামনে সংঘটিত হত্যাকাণ্ডের জেরে আক্রান্ত হচ্ছে নারী শিশুসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই পরিস্থিতি উত্তরণে শুধু আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সক্রিয়তাই, নয় আশ-পাশের লোকজনেরও সহযোগীতামূলক মনোভাব থাকতে হবে।

২০১২ সালের ১১ই ফেব্রুয়ারী সাগর-রুনির নৃশংস হত্যার দৃশ্য দেখে বাকরুদ্ধ পরে ৫ বছরের শিশু সন্তান মেঘ।  শুধু সেই শিশু সন্তানই নয় ঐ ফ্ল্যাটে বসবাস রত অন্যরাও হয়ে পড়ে আতঙ্কিত। এ ধরণের ঘটনা আমাদের চারপাশে বহু ঘটছে।

এরপর নৃশংশ হত্যার শিকার হয়েছেন অনেকেই। চলতি বছরের ১১ ই ডিসেম্বর রাজধানীর আফতাব নগরে গলাকেটে হত্যাকরা হয় এক যুবককে। আর ১৫ই ডিসেম্বর মহাখালির আজতপাড়ায় গলাকেটে হত্যা করা হয় ৬০ বছরের এক বৃদ্ধাকে।

ঘটে যাওয়া এসব হত্যাকাণ্ডের ফলে নারী শিশুসহ পরিবারের অন্যান্য সদস্যের আক্রান্ত হবার আশংকা রয়েছে বলে মনে করছেন মনোবিজ্ঞানীরা। হত্যাকান্ডের আগে ও পরে পারিবারিক ও সামাজিক কাউন্সিলিংয়ের প্রতিও জোর দিয়েছেন গবেষকরা।