অদেখা সুচিত্রা সেন

0
63

ভারতের বাংলা ছবির মহানায়িকা সুচিত্রা সেনের কয়েকটি ছবি বারবার দেখা যায়। সেগুলো আবার গত শতকের ষাট কিংবা সত্তর দশকের। এরপর তাঁর উল্লেখযোগ্য ছবি সেভাবে দেখা যায় না। এবার প্রয়াত এই নায়িকার পুরোনো কিন্তু অন্য রকম একটি ছবি পাওয়া গেছে। ছবিটি প্রকাশ্যে এনেছেন তাঁর নাতনি রাইমা সেন।

গতকাল শনিবার রাত ১০টা নাগাদ সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটার হ্যান্ডেলে সুচিত্রা সেনের একটি দুর্লভ ছবি শেয়ার করেছেন তাঁর নাতনি রাইমা সেন। সাদাকালো এই ছবিতে দেখা যায়, সুচিত্রা সেন হাত-পা ছড়িয়ে ছাদে বসে আসেন। পেছনে টবে গাছের সারি। তাঁর পরনে ফ্রক আর পায়ে হিল জুতো। তাকিয়ে আছেন ক্যামেরায়। তাঁর মুখে লেগে আছে চিরপরিচিত প্রাণখোলা হাসি। আর ছবির ক্যাপশনে রাইমা সেন লিখেছেন, ‘আমার নানি।’

রাইমা সেন এখন দিল্লিতে আছেন। সেখানে অতুল কুলকার্নির সঙ্গে ‘অন্য-দ্য আদার’ ছবির শুটিং করছেন তিনি। জানা গেছে, এই ছবিতে তিনি একজন সাংবাদিকের চরিত্রে অভিনয় করছেন। সম্প্রতি সেই শুটিংয়ের ছবি শেয়ার করেন রাইমা।

১৯৫২ সালে সুচিত্রা সেন প্রথম অভিনয় করেন ‘শেষ কোথায়’ ছবিতে। কিন্তু ছবিটি মুক্তি পায়নি। তাঁর মুক্তি পাওয়া প্রথম ছবি ‘সাত নম্বর কয়েদি’ (১৯৫৩)। এরপর সুচিত্রা সেন অভিনয় করেছেন ৬১টি ছবিতে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ছবিতে অভিনয় করেছেন উত্তম কুমারের সঙ্গে। দীর্ঘ ২৫ বছর চলচ্চিত্রের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন সুচিত্রা সেন। ১৯৭৮ সালে তিনি চলচ্চিত্র থেকে দূরে সরে যান। এরপর তাঁকে আর জনসমক্ষে দেখা যায়নি। শোনা যায়, এ সময় তিনি রামকৃষ্ণ মিশনের সেবায় ব্রতী হন। ২০০৫ সালে দাদাসাহেব ফালকে পুরস্কারের জন্য সুচিত্রা সেন মনোনীত হন। কিন্তু ভারতের রাষ্ট্রপতির কাছ থেকে সশরীরে পুরস্কার নিতে দিল্লি যাওয়ায় আপত্তি জানান তিনি। এ কারণে তাঁকে পুরস্কার দেওয়া হয়নি।

২০১৪ সালের ১৭ জানুয়ারি ভারতীয় সময় সকাল ৮টা ২৫ মিনিটে কলকাতার বেল ভিউ হাসপাতালে হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হয়ে ৮২ বছর বয়সে সুচিত্রা সেনের মৃত্যু হয়। তাঁর শেষকৃত্যে রাষ্ট্রীয় সম্মান গান স্যালুট দেওয়া হয়।