অনুপ্রবেশকারীদের ফেরাতে কাজ করছে মিয়ানমার সরকার, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে সু চি

0
74

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে যারা সীমান্ত পেরিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে, তাদের ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমার সরকার কাজ শুরু করেছে বলে জানিয়েছেন দেশটির স্টেট কাউন্সেলর অং সান সু চি।

মিয়ানমার সফররত বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বুধবার সকালে রাজধানী নেপিদোতে দেশটির স্টেট কাউন্সিলর ও ক্ষমতাসীন দলের শীর্ষ নেতা সু চির সঙ্গে দেখা করতে গেলে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন নিয়ে সু চি এ কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা শরীফ মাহমুদ অপু জানান, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর নেতৃত্বে বাংলাদেশের দশ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল সকালে মিয়ারমারের নেত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে যান। সেখানে ‘আন্তরিক পরিবেশে’ প্রায় এক ঘণ্টা তাদের মধ্যে কথা হয়।

অং সান সু চি বলেছেন, বাংলাদেশে অবৈধ অনুপ্রবেশকারীদের ফিরিয়ে নিতে তার সরকার কাজ শুরু করেছে। কফি আনান কমিশনের সুপারিশ বাস্তবায়নেও তার সরকার কাজ করছে।

মন্ত্রীর সফরসঙ্গী পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা শরীফ মাহমুদ অপু জানান, কামাল সু চিকে সতর্ক করেন যে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গারা ফিরে না এলে তারা জঙ্গিবাদী কর্মকাণ্ডে সম্পৃক্ত হতে পারেন, যা দুই দেশের কারও জন্য ভালো হবে না।

মন্ত্রী সু চিকে অবহিত করেন যে মিয়ানমার থেকে ইয়াবার চোরাচালান বাংলাদেশে ভয়াবহ পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছে। সু চি এটা বন্ধ করতে পদক্ষেপ নেওয়ার পুনরায় আশ্বাস দেন।

বাংলাদেশে মিয়ানমারের নাগরিকদের অনুপ্রবেশ বন্ধে নেপিডো একমত হওয়ার এক দিন পর মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলের সঙ্গে বাংলাদেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর এ বৈঠক হয়।

এর আগে গতকাল এক বৈঠকে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে সম্মত হয়েছে মিয়ানমার। পাশাপাশি জাতিসংঘের সাবেক মহাসচিব কফি আনানের নেতৃত্বে গঠিত আনান কমিশনের সুপারিশ বাস্তবায়নেও সম্মত হয়েছে। এ ব্যাপারে মিয়ানমার ও বাংলাদেশ ৩০ নভেম্বরের মধ্যে একটি জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠন করবে।

অপু জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কামাল বৈঠকে সু চিকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান। সু চি দুই দেশের সুবিধাজনক সময়ে বাংলাদেশ সফর করবেন বলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে জানিয়েছেন।