অভিজিৎ হত্যায় অভিযুক্ত একজন গ্রেফতার

0
56

ব্লগার ও বিজ্ঞানবিষয়ক লেখক অভিজিৎ রায় হত্যায় জড়িত থাকার অভিযোগে এক ‘জঙ্গিকে’ গ্রেপ্তার করেছে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম ও ট্রান্স ন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিট। রোববার রাতে রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তার হওয়া ‘জঙ্গির’ নাম সোহেল ওরফে সাকিব।

পুলিশ বলেছে, সোহেল নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন আনসার আল ইসলামের (পুরোনো নাম আনসারুল্লাহ বাংলা টিম) সক্রিয় সদস্য। তিনি অভিজিৎ রায় হত্যায় সরাসরি অংশ নিয়েছিলেন। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে বলেছে, তাদের সংগঠনের বড় ভাই জিয়ার ( মেজর জিয়া) নির্দেশে সে ওই হত্যাকাণ্ডে অংশ নেয়।” অভিজিৎ হত্যাকাণ্ডের পর সিসিটিভি ভিডিও পর্যালোচনা করে যাদের চিহ্নিত করা হয়েছিল, তাদের মধ্যে সোহেলও ছিল বলে জানান পুলিশ কর্মকর্তা ইউসুফ।

গত বছর অভিজিৎ রায়কে হত্যার স্থানের আশপাশ থেকে ক্লোজ সার্কিট ক্যামেরার ফুটেজ সংগ্রহ করে পুলিশ। এরপর সোহেলসহ ছয়জনকে ধরিয়ে দিতে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) ফেসবুক পেজে ছবি দেওয়া হয়।

সোহেলকে রিমান্ডের নেওয়ার আবেদন আদালতে পাঠানো হচ্ছে। ডিএমপির কাউন্টার টেররিজম ও ট্রান্স ন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের একজন কর্মকর্তা এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

২০১৫ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি চত্বরের কাছে দুর্বৃত্তদের চাপাতির কোপে ব্লগার ও বিজ্ঞানবিষয়ক লেখক অভিজিৎ রায় নিহত হন। এ ঘটনায় তাঁর স্ত্রী রাফিদা আহমেদ বন্যাও আহত হন। তাঁরা দুজনই যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক। অমর একুশে বইমেলা উপলক্ষে তাঁরা দেশে এসেছিলেন। বইমেলা থেকে বেরিয়ে বাসায় ফেরার পথে ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাদের কুপিয়ে হত্যা করা হয়।