অস্ট্রেলিয়ার পার্লামেন্ট ভবনে ধর্ষণের অভিযোগ

0
77

অস্ট্রেলিয়ার পার্লামেন্টে ধর্ষণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ করেছেন এক নারী। এ ঘটনায় ক্ষমা চেয়েছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। বিষয়টি নিয়ে তদন্তের আশ্বাস দেয়ার পাশাপাশি সংসদে কাজের পরিবেশ কতটা নিরাপদ তা-ও খতিয়ে দেখা হবে বলে জানিয়েছেন মরিসন।

ওই নারী জানিয়েছেন, ২০১৯ সালের মার্চে প্রতিরক্ষামন্ত্রী লিন্ডা রেনল্ডসের কার্যালয়ে ধর্ষণের শিকার হন। মরিসনের ক্ষমতাসীন দল লিবারেল পার্টির এক কর্মীই এই কাজ করেছেন। বিষয়টি তিনি রেনল্ডসের দপ্তরের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তাকে জানিয়েছিলেন। পরে ওই কর্মকর্তা তাকে কার্যালয়ের একটি বৈঠকে যোগ দিতে বলা হয়। তবে সেখানে তিনি হেনস্থার শিকার হয়েছেন।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যমকে তিনি জানিয়েছেন, ওই বছরের এপ্রিলের প্রথম দিকে তিনি বিষয়টি পুলিশকে জানিয়েছিলেন। তবে চাকরি হারানোর ভয়ে তিনি আনুষ্ঠানিক অভিযোগ করেননি।

পুলিশ জানিয়েছে, তারা এ বিষয়ে অভিযোগ দায়েরের জন্য ওই নারীকে বলেছিলেন। তবে তিনি অভিযোগ করতে অস্বীকৃতি জানিয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী মরিসন ক্ষমা প্রার্থনা করে বলেছেন, ‘এটা হওয়া উচিত ছিল না এবং আমি ক্ষমা চাচ্ছি। আমি নিশ্চিত করতে চাই যে, এখানে যে তরুণীই কাজ করুন না কেন তিনি যতদূর সম্ভব নিরাপদ। ওই নারী উপদেষ্টার প্রতিবাদ অন্য সবার জন্য উদাহরণ হয়ে থাকবে। তিনি জানান, ঘটনার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য একটি বিশেষ কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত শেষে ধর্ষণের সত্যতা নিশ্চিত হওয়া গেলে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন তিনি।’