আইনজীবি হত্যার মুল পরিকল্পনাকারীর স্বীকারোক্তি মুলক জবানবন্দী

0
201

আমিনুল ইসলাম ফিরোজ :

রংপুরের বিশেষ জজ কোটের পিপি আইনজীবি রথিশ চন্দ্র ভৌমিক হত্যা মামলার মুল পরিকল্পনাকারী কামরুল ইসলামকে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি শেষে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭ থেকে রাত সাড়ে ১২ টা পর্যন্ত রংপুরের অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আরিফা ইয়াসমিন মুক্তার আদালতে
আসামী কামরুল স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি প্রদান করে।

গত ৪ঠা এপ্রিল একই আদালত কামরুলকে ১০ দিনের রিমান্ডে পাঠায়। ৮ দিনের রিমান্ড শেষে বৃহস্পতিবার তাকে আদালতে হাজির করে পুলিশ। এই মামলায় অপর ৪ জনের মধ্যে প্রধান আসামী মৃত এ্যাডভোকেটের স্ত্রী স্নিগ্ধা সরকার দিপা, এ্যাডভোকেটের

ব্যক্তিগত সহকারী মিলন মোহন্তকে আদালত এর আগেই কারাগারে প্রেরন করে। এছাড়া অপর ২ আসামী সবুজ ও রোকনকে যশোর অপরাধ সংশোধন কেন্দ্রে পাঠানো হয়।

উল্লেখ্য, আইনজীবি রথিস ভৌমিক স্ত্রী স্নিগ্ধা সরকার দীপা ভৌমিকের পরকীয়া প্রেমের জেরে খুন হন গত ২৯ মার্চ। পরে ৩ মার্চ আইনজীবির বাবু পাড়া তাজহাটের বাসা থেকে আধা কিলোমিটার দূরে তাজহাট মোল্লা পাড়ায় তার গলিত ও বিকৃত মরদেহ উদ্ধার করে র‌্যাব।

এই ঘটনায় নিহতের ছোট ভাই বাদী হয়ে কোতয়ালী থানায় মামলা করে। পুলিশ ও র‌্যাব ঘটনার সঙ্গে সরাসরি জড়িত দীপা, কামরুলসহ তাদের দুই স্কুলছাত্র সবুজ ও রোকন এবং বাবু সোনার সহকারী মিলনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদে গুরুত্বপুর্ন তথ্য পাওয়ায় তাকেও গ্রেপ্তার দেখায় । আইনজীবীর স্ত্রী,স্কুলছাত্র ও মিলনের জবানবন্দি গ্রহনের পর কারাগারে প্রেরন করে আদালত। আর মুল পরিকল্পনাকারীকে ১০ দিনের রিমান্ডে নেয় কোতয়ালী থানা পুলিশ।