আইপিএলে কলকাতায় সাকিব, মোস্তাফিজের নতুন ঠিকানা রাজস্থান

0
94

আইপিএলের ১৪তম আসরে সাকিব আল হাসানকে দলে নিয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স। তার ভিত্তিমূল্য ছিল ২ কোটি রুপি। ৩ কোটি ২০ লাখ রুপিতে কলকাতা নাইট রাইডার্স। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা ৩ কোটি ৭৪ লাখ টাকা।

এই ফ্র্যাঞ্চাইজির হয়েই আইপিএল ক্যারিয়ার শুরু হয়েছিল বিশ্বসেরা অলরাউন্ডারের। এরপর ৭ মৌসুম নাইট রাইডার্সে খেলেছেন সাকিব। ২০১২ এবং ২০১৪ সালে এই ফ্র্যাঞ্চাইজির হয়ে শিরোপা জেতার স্বাদও পেয়েছেন তিনি। দুই মৌসুম আগে তাকে ছেড়ে দেয় শাহরুখ খানের দল। এরপর সাকিব সানরাইজার্স হায়দরাবাদে খেলেছিলেন।

সাকিবকে ছেড়ে দেওয়ায় কলকাতা নাইট রাইডার্সে কোনো বাঙালি ক্রিকেটার ছিল না। ছিল না কোনো স্থানীয় ক্রিকেটার। বিষয়টি নিয়ে ওপার বাংলার মিডিয়ায় ব্যাপক সমালোচনার সৃষ্টি হয়। কলকাতার সমর্থকেরা সাকিবকে ফেরানোর দাবি জানিয়েছিল। কিন্তু ত্রয়োদশ আইপিএলের আগে আইসিসি কর্তৃক নিষিদ্ধ হন সাকিব। এখন তার নিষেধাজ্ঞা কেটে গেছে, ফিরেছেন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে। আইপিএল খেলতেও বাঁধা নেই।

নিলামে সাকিবের ডাক ওঠার পর প্রথমে পাঞ্জাব কিংস ২ কোটি ২০ লাখ রুপি দাম হাঁকায়। কলকাতা তা বাড়িয়ে ২ কোটি ৪০ লাখ রুপি করে। পাঞ্জাব পরে তা আরও ২০ লাখ রুপি বাড়িয়ে ২ কোটি ৬০ লাখ রুপি হাঁকায়। এরপর কলকাতা ৩ কোটি ২০ লাখ রুপি দাম করলে হার মানে পাঞ্জাব।

সাকিব আল হাসানের পর আরও এক বাংলাদেশি ক্রিকেটার আইপিএলে দল পেয়েছেন। তিনি কাটার মাস্টার মুস্তাফিজুর রহমান। ১ কোটি রুপিতে তাকে দলে নিয়েছে রাজস্থান রয়্যালস। তার ভিত্তিমূল্য ছিল ১ কোটি রুপি। এই দামেই মুস্তাফিজুর রহমান বিক্রি হয়েছেন। আইপিএলে এটি মুস্তাফিজের তৃতীয় দল। ২০১৬ সালে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ দিয়ে তার আইপিএল অধ্যায় শুরু হয়েছিল।

অভিষেকেই সাড়া ফেলে দিয়েছিলেন মোস্তাফিজ। ১৬ ম্যাচে ১৭ উইকেট নিয়েছিলেন। টাইগার পেসারকে নিয়ে সেবার শিরোপাও জিতেছিল ডেভিড ওয়ার্নারের নেতৃত্বাধীন সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। প্রথম আইপিএলেই টুর্নামেন্টের সেরা উদীয়মান খেলোয়াড়ের পুরস্কার হাতে তুলেন মোস্তাফিজ। কোনো বিদেশি ক্রিকেটারের আইপিএলে এই পুরস্কার পাওয়ার কীর্তি সেটিই প্রথম।

২০১৬ সালে মুস্তাফিজ ছিলেন ক্রিকেটবিশ্বে নবীন এক সুপারস্টার। তার বল কেউ বুঝতো না। যে কারণে সেইসঙ্গে ‘দ্য ফিজ’ ‘কাটার মাস্টার’ ইত্যাদি উপাধিও পেয়ে যান। দুই মৌসুম হায়দরাবাদে কাটিয়ে ২০১৮ সালে তিনি মুম্বাই ইন্ডিয়ানসে যোগ দেন। গতবার মুম্বাইও তাকে ছেড়ে দেয়। এবার তিনি রাজস্থানে।