আপনাদের সবার মিলিত বুদ্ধির চেয়ে আলিয়ার বুদ্ধি বেশি : পূজা ভাট

0
115

বছর কয়েক আগে করণ জোহরের ‘কফি উইথ করণ’ অনুষ্ঠানে এসে খুব ঝামেলায় পড়েন আলিয়া ভাট। অনুষ্ঠানে করণ আলিয়াকে প্রশ্ন করেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রীর নাম কী? সেই প্রশ্নের উত্তর আলিয়া দিতে পারেননি। আর এরপর থেকেই আলিয়ার সাধারণ জ্ঞানের অভাব নিয়ে বিভিন্ন মাধ্যমে সমালোচনা হয়। তা ছাড়া এই বলিউড তারকা গণমাধ্যমে প্রায়ই ‘নির্বোধ’ কথাবার্তার কারণে অনলাইনে ‘ট্রল’-এর শিকার হন। সবাই আলিয়াকে যতই বোকা মনে করুক, বড় বোন ও সাবেক বলিউড তারকা পূজা ভাট কিন্তু আলিয়াকে বুদ্ধিমতী মনে করেন।

বলিউডের একসময়ের নায়িকা ও নির্মাতা পূজা ভাট বরাবরই ছোট বোন আলিয়ার ব্যাপারে বেশ রক্ষণশীল। যদিও আলিয়া তাঁর আপন বোন নন। পূজা আর আলিয়া নির্মাতা মহেশ ভাটের দুই স্ত্রীর সন্তান। পূজার মা কিরণের সঙ্গে বিবাহবিচ্ছেদের পর সোনি রাজদানকে বিয়ে করেন মহেশ ভাট। সোনির ঘরেই আলিয়ার জন্ম। কিন্তু সৎবোন বলে কখনো আলিয়াকে পর করে দেখেননি পূজা। বরং ছোট বোনকে নিয়ে গর্ব বোধ করেন।

পূজা ভাট বলেন, ‘আমি সবাইকে বলতে চাই, আলিয়ার বোকাসোকা রূপ দেখে আপনারা নিজেরা বোকা হবেন না। জেনে রাখুন, আপনাদের সবার বুদ্ধি মেলালে যত বুদ্ধি হবে, আলিয়া একাই তা ধারণ করে।’

পূজা জানান, আজ আলিয়ার সাফল্য দেখে ভাট পরিবারের সদস্যরা মোটেও অবাক নন। কারণ, আলিয়া যেখানেই গিয়েছেন, ভালো কিছু অর্জন করে ফিরেছেন। তাই আলিয়ার এই সাফল্য ভাট পরিবারের জন্য খুব স্বাভাবিক ব্যাপার। ৪৫ বছর বয়সী পূজা আরও বলেন, ‘আলিয়া ছোটবেলা থেকেই নিজের লক্ষ্য সম্পর্কে খুব পরিষ্কার। সে খুব ভালো করেই জানে যে সবচেয়ে সেরাটাই তার চাই। আর এটা তো ওর সাফল্যের মাত্র শুরু।’

পূজা ভাট গত শতকের নব্বই দশকে ‘ড্যাডি’, ‘সড়ক’, ‘জখম’, ‘দিল হ্যায় কি মানতা নেহি’-এর মতো অসংখ্য হিট ছবিতে অভিনয় করেছেন। পূজা যখন বলিউড দাপাচ্ছিলেন, আলিয়া তখন শিশু। বয়সে আলিয়ার চেয়ে পূজা ২১ বছরের বড়।