আফ্রিকার কাছে ভারতের হারে সোশ্যাল মিডিয়ায় সমর্থকদের ক্ষোভ

0
109

কেপটাউন টেস্টে ভারতীয় বোলিং অ্যাটাক দূরন্ত পারফরম্যান্স করে। তবুও দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টে সোমবার ৭২ রানে হারতে হয় ভারতকে।

মূলত ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতার কারণেই কেপটাউন টেস্ট হাত ছাড়া করতে হয়েছে ভারতকে। বিরাট কোহলি-চেতেশ্বর পূজারাদের পাশাপাশি বড় রান করতে পারেননি

ঘরের মাঠে বিগত কয়েকটি টেস্টে নজর কাড়া রোহিত শর্মা-শিখর ধাওয়ানও। আর এর পরই টিম ইন্ডিয়ার নির্বাচন নিয়ে নিজেদের ক্ষোভ উগড়ে দিলেন সমর্থকরা বিগত দু’বছর ধরে টেস্ট ক্রিকেটে লাগাতার ভাল পারফরম্যান্স করে আসছেন কেএল রাহুল।

অন্য দিকে, বিদেশের মাটিতে ধারাবাহিক ভাবে সফল অাজিঙ্কা রাহানেও। দু’জনকেই কেপটাউন টেস্টে সুযোগ দেয়নি ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট। আর তাই কেপটাউনে দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে প্রথম টেস্ট হারের পর সমর্থকদের আক্রমণের কেন্দ্রে ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্ট।

রাহুল এবং রাহনের পরিবর্তে সুযোগ পাওয়া শিখর ধাওয়ান এবং রোহিত শর্মাও চূড়ান্ত ফ্লপ। দুই ইনিংস মিলিয়ে ধবনের রান ৩২, অন্য দিকে, প্রথম টেস্টে দুই ইনিংস মিলিয়ে রোহিতের সংগ্রহ ২১।

রাহানে-রাহুলের জায়গায় খেলা এই দুই ক্রিকেটার ফ্লপ হতেই টুইটারে নিজেদের ক্ষোভ উগরে দেন ভারতীয় সমর্থকরা। ভারতীয় এক সমর্থক লেখেন, বিদেশি পরিবেশে রোহিত শর্মাকে খেলানোর পিছনে কী যুক্তি থাকতে পারে তা খোদ আইনস্টাইনও ব্যাখ্যা করতে পারবেন না।

আর এক জন লিখেছেন, হয়তো এই কথাটা কোনও সমর্থকের খারাপ লাগবে, তবে এটা বাস্তব যে, রোহিত শর্মা এবং শিখর ধাওয়ান টেস্টের প্লেয়ার নন।

সেঞ্চুরিয়ান টেস্টে রাহুল এবং রাহানেকে ফেরানোর দাবি তুলে এক জন লেখেন, পরের ম্যাচে দুটো দলে দুটো বদল আমরা চাই। শিখর ধবনের পরিবর্তে কেএল রাহুল এবং রোহিত শর্মার পরিবর্তে অজিঙ্ক রাহানে।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্দে প্রথম ইনিংসে ২৮৬ রানের জবাবে ভারতীয় ইনিংস শেষ হয়ে যায় ২০৯ রানে। দ্বিতীয় ইনিংসেও মহম্মদ শামি-ভুবনেশ্বর কুমারদের দাপটে ১৩০ রানে গুটিয়ে যায় প্রোটিয়া বাহিনী। জয়ের জন্য দরকার ছিল ২০৮ রান। কিন্তু সেই রানও তুলতে পারেনি ভারতীয় ব্যাটসম্যানরা।