আবারও ডেটা কেলেঙ্কারিতে ফেইসবুক

0
192

ফেইসবুক ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য আবারও উন্মুক্ত হয়ে পড়েছে। অ্যামাজনের ক্লাউড কম্পিউটিং সার্ভারের মাধ্যমে ইন্টারনেটে উন্মুক্ত অবস্থায় দুটি বিশাল বিশাল ডেটা সেট খুঁজে পেয়েছেন সাইবার সিকিউরিটি ফার্ম আপগার্ডের বিশেষজ্ঞরা।

তারা জানিয়েছেন, ডেটাগুলো সংগ্রহ করে আপলোড করেছে দুটি থার্ড পার্টি অ্যাপ ডেভেলপার, যারা অ্যামাজন ওয়েব সার্ভিসের মাধ্যমে ব্যবসা পরিচালনা করে।

আপগার্ড জানিয়েছে, ম্যাক্সিকোভিত্তিক কালচারা কালেক্টিভা নামের অ্যাপ আপলোড করেছে ৫৪ কোটি তথ্য। সংরক্ষণে রাখা ডেটাগুলোর মধ্যে আছে অ্যাকাউন্টের নাম, ইমেইল ঠিকানা, রিঅ্যাকশন ও ফেইসবুকে পোস্ট করা কমেন্ট।

অ্যাট দ্য পুল নামের আরেকটি অ্যাপ আপলোড করেছে আরেক সেট ডেটা। সেখানে আপলোড করা হয়েছে ব্যবহারকারীদের বন্ধু তালিকা, কী কী মুভি দেখেছে সেটার তালিকা, গানের তালিকা, ইভেন্টের তালিকা, ফেইসবুক গ্রুপ তালিকা, চেক ইন তালিকা, ও ২২ হাজার পাসওয়ার্ডের তালিকা।

আপগার্ড জানিয়েছে, ফেইসবুক ছাড়া এই দুটি ডেটা সেটের কোনো অস্তিত্বই থাকতো না। তবে ডেটা সেটগুলো এখন আর ফেইসবুকের নিয়ন্ত্রণে নেই।অ্যামাজনের ক্লাউড কম্পিউটিং সার্ভিসে কয়েক লাখ ছোট বড় কোম্পানি তাদের তথ্য সংরক্ষণ করে।

তাদের সেবাটি পরিচিত সিম্পল স্টোরেজ সার্ভিস (এস৩) নামে। ডেটা গোপন রাখতে এস৩ এর একটি ডিফল্ট সেটিং হচ্ছে ‘বাকেটস’। তবে গ্রাহকরা চাইলে সেটিংসে পরিবর্তন এনে সবার জন্য ডেটাগুলো উন্মুক্ত করে দিতে পারে। গত জানুয়ারিতেই আপগার্ড অ্যামাজনকে একটি ডেটাসেট উন্মুক্ত হয়ে পরার ব্যাপারে সতর্ক করে।

অ্যামাজন তখন জানায়, এ ব্যাপারে অ্যাকাউন্টের মালিককে জানানো হয়েছে।তারপরও গত বুধবারের আগে সেটিংসে পরিবর্তন আসেনি। সংবাদ মাধ্যম ব্লুমবার্গ আপগার্ডের অনুসন্ধানের ব্যাপারে ফেইসবুকের সঙ্গে যোগাযোগ করলে তবেই ঠিক হয় সেটিংস।

ফেইসবুকের এক মুখপাত্র বলেন, এ ব্যাপারে সর্তক হওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই ডেটা সেটগুলো নামিয়ে নিতে অ্যামাজনের সঙ্গে কাজ করেছে ফেইসবুক।ক্যামব্রিজ অ্যানালিটিকা স্ক্যান্ডালের পর থার্ড পার্টি অ্যাপগুলোর ‌উপরে ডেটা নেওয়া বা ডেটা শেয়ার করার ব্যাপারে নিষেধাজ্ঞা জারি করে ফেইসবুক। কিন্তু আবারও ব্যবহারকারীদের ডেটার সুরক্ষা না পারায় বির্তকের মুখে পড়লো ফেইসবুক।