আমরা সবকিছু হারিয়েছি, এখন রুখে দাঁড়াতে হবে : মির্জা ফখরুল

0
87

খালেদা জিয়ার জামিন আটকে যাওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, আমরা সবকিছু হারিয়ে ফেলেছি। আমাদের হারাবার আর কিছু নেই। তাই এখন নতুন করে রুখে দাঁড়াতে হবে।

শুক্রবার রাজধানীতে এক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, আওয়ামী লীগ দেশে ‘এক ব্যক্তির শাসন’ পাকাপোক্ত করতেই গণতন্ত্র ও জনগণের বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছে।

“আমি স্পষ্ট করে বলতে চাই, এখন সময় এসেছে রুখে দাঁড়াবার, সময় এসেছে একেবারে প্রতিবাদ করার, প্রতিরোধ করবার। আজকে প্রতিটি বিবেকবান মানুষের দায়িত্ব হচ্ছে এই ভয়াবহ পরিণতি থেকে দেশকে ও জাতিকে রক্ষা করা।”

জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় কারাদণ্ডের রায়ের পর চার মাস ধরে বন্দি খালেদা জিয়া কুমিল্লার আরও দুটি মামলায় হাই কোর্ট থেকে জামিন পেয়েছিলেন। ফলে ঈদের আগেই তার মুক্তির আশা করেছিলেন বিএনপি নেতারা।

কিন্তু হাই কোর্টের দেওয়া ওই জামিন আদেশ আপিল বিভাগ ২৪ জুন পর্যন্ত স্থগিত করে দেওয়ায় ঈদের আগে খালেদার মুক্তি আটকে গেছে।

বিএনপি মহাসচিবের দাবি, তাদের চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে যেভাবে আটক রাখা হয়েছে তা ‘সম্পূর্ণ অন্যায় ও নজিরবিহীন’।

“আমার বুঝতে পারি না- এখনো আমাদের কিছু কিছু প্রতিষ্ঠানের প্রতি আস্থা আছে কীভাবে? হাই কোর্ট জামিন দিয়েছে, সর্বোচ্চ আদালত থেকে এটাকে স্থগিত করে রেখে কৌশলে এই যে ছুটির পরে দেওয়া হবে, ছুটির পরে দেয়া হবে করে মাসের পর মাস বেগম জিয়াকে কারারুদ্ধ করে রেখেছে…।
“আমি জানি না একথা বললে আদালত অবমাননা হবে কিনা। হলেও কিছু যায় আসে না। কারণ এখন আমাদের হারাবার কিছু নাই, আমরা সব কিছু হারিয়ে ফেলেছি। তাই এখন সময় এসেছে রুখে দাঁড়াবার।“

ফখরুলের অভিযোগ, এখন কেবল মানুষের ভোটের অধিকার নয়, কথা বলার স্বাধীনতা নয়, জনগণের নাগরিক অধিকারও ‘ধ্বংস করে’ ফেলা হয়েছে।

“আজকে আমাদের দেয়ালে পিঠ ঠেকে গেছে। আসুন পবিত্র রমজান মাসে আল্লাহর কাছে সেই দোয়া চাই, তিনি যেন আমাদের সেই শক্তি দেন, সেই শক্তি দিয়ে এই ভয়াবহ স্বৈরাচার দানবকে প্রতিরোধ করার লক্ষ্যে আমরা জেগে উঠতে পারি। দেশনেত্রীকে মুক্ত করে সত্যিকার অর্থে একটি সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে পারি।”

ফখরুলর ভাষায়, এত খারাপ সময় বাংলাদেশের মানুষ কখনও দেখেনি।

“পাকিস্তান সময়ে যুদ্ধে ৯ মাস, তার আগে পাকিস্তানি শাসকগোষ্ঠিও এই একেবারে উলঙ্গভাবে মানুষ হত্যা করেনি, মানুষের ওপর নির্যাতন করেনি, মানুষের ওপরে নির্মমতা চালায়নি। আজকে সব কিছু ছাড়িয়ে গেছে এই আওয়ামী লীগের সরকারের সময়ে, যারা নির্বাচিত নয়, যাদের প্রতি জনগণের কোনো ম্যান্ডেট নাই।”
কারাবন্দি খালেদা জিয়াকে নিয়ে মেহেরপুর বিএনপির সভাপতি মাসুদ অরুণের লেখা গানের সিডি ‘রণধ্বনি’র মোড়ক উন্মোচন উপলক্ষে নয়া পল্টনে বিএনপির মহানগর কার্যালয়ের মওলানা ভাসানী মিলনায়তনে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

সাবেক সাংসদ মাসুদ অরুণের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান শামসুজ্জামান দুদু, সহ সাংগঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, শহীদুল ইসলাম বাবুল, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক কাজী আবুল বাশার, উত্তরের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মুন্সী বজলুল বাসিত আনজু বক্তব্য দেন।

স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতা মোস্তাফিজুর রহমান, কৃষক দলের মাইনুল ইসলাম, মহানগর দক্ষিণের সাইদুর রহমান মিন্টু, খতিবুর রহমান, খোকন ও মোজাম্মেলন হক মুক্তো অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।