ইন্টারনেট আসক্তিতে ব্যহত হচ্ছে শিশুর বিকাশ

0
119

শারমিন আজাদ : ইন্টারনেট তথ্য প্রযুক্তির যুগে এক অবাধ জ্ঞান ভান্ডার। তবে এর রয়েছে কিছু নেতিবাচক দিকও। আর ইন্টারনেট ব্যবহার করে এখন শিশুরাও শিকার হচ্ছেন নানা ধরণের প্রতারণা বা হয়রানির। এর ফলে সামাজিকভাবে তাদের বিকাশ ব্যাহত হচ্ছে। তেমনি ইন্টারনেটের সুফল নিতে গিয়ে ব্যবহারকারী শিশু পরিণত হচ্ছেন আসক্তির শিকারে।

গত দেড় দশকে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা বেড়েছে প্রায় ৮শ গুণ। এর মধ্যে ২৫ শতাংশ শিশু ১১ বছর বয়সের আগেই ডিজিটাল জগতে প্রবেশ করতে শুরু করে। অনলাইনে বেশিরভাগ শিশু সময় কাটায় চ্যাটিং এবং ভিডিও দেখার কাজে।

ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ১০ শতাংশ শিশু ধর্মীয় উস্কানিমূলক বিষয়বস্তুও মুখোমুখি হওয়ার অভিযোগ করেছে ইউনিসেফের রিপোর্টে। সেখানে আরো বলা হয়েছে শিশুদেও একটি বড় অংশ ইন্টারনেট ব্যবহার করে তাদের বেডরুমে। যার ফলে কোন নজরদারি ছাড়াই তারা ইন্টারনেটে বিচরণ করতে পারে।

দেশে ইন্টারনেট ব্যবহারকারী ১০ থেকে ১৭ বছর বয়সী ৩২ শতাংশ শিশু অনলাইন সহিংসতা এবং ডিজিটাল উৎপীড়নের শিকার হওয়ার মতো বিপদের মুখে আছে। কারণ তাদের বেশিরভাগ সময় কাটে ইন্টারনেটের জগতে।

৭০ শতাংশ ছেলে ও ৪৪ শতাংশ মেয়ে অনলাইনে অপরিচিত মানুষের বন্ধুত্ব অনুরোধ গ্রহণ করে। তাদের একটি অংশ আবার সেই অনলাইন বন্ধুদের সঙ্গে সরাসরি দেখার কথাও শিকার করে।