ইসরায়েলের সঙ্গে ম্যাচ বাতিল করল আর্জেন্টিনা

0
141

ফিলিস্তিনের রাজধানী পবিত্র জেরুজালেম শহরে দখলদার ইসরায়েলের সঙ্গে বিতর্কিত প্রীতি ম্যাচ বাতিলের ঘোষণা দিয়েছেন আর্জেন্টিনার জাতীয় ফুটবল দল। ফিলিস্তিনের গণহত্যায় ব্যবহৃত ইসরাইলের অধিকৃত টেডি স্টেডিয়ামে আগামী ৯ জুন ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল।

তবে বিশ্বব্যাপী তীব্র সমালোচনা ও ফিলিস্তিনি ফুটবল ফেডারেশনের আপত্তির পরিপ্রেক্ষিতে আর্জেন্টিনার ফুটবল দল মঙ্গলবার ম্যাচটি বাতিলের ঘোষণা দেয়।

আর্জেন্টিনার ক্রীড়াবিষয়ক ওয়েবসাইট মিনুতুনো জানিয়েছে, সহিংসতা বৃদ্ধির আশঙ্কা, হুমকি ও সমালোচনার মুখে লিওনেল মেসির নেতৃত্বাধীন আর্জেন্টিনার ফুটবল দল ইসরাইলের সঙ্গে ৯ জুনের প্রস্তুতি ম্যাচটি বাতিল করেছে।

প্রথমে ইসরাইলের হাইফাতে এ ম্যাচটি হওয়ার কথা থাকলেও পরে ভেন্যু বদলে তা অধিকৃত পশ্চিম জেরুজালেমের টেডি স্টেডিয়ামে নিয়ে যাওয়া হয়। ১৯৪৮ সালে নিরপরাধ ফিলিস্তিনিদের উচ্ছেদ করে এই স্টেডিয়ামটি তৈরি করেছিল দখলদার ইসরাইল।

স্টেডিয়ামটি ফিলিস্তিনিদের গুপ্তহত্যায়ও ব্যবহার করা হতো। এ কারণে ফিলিস্তিনিরা শুরু থেকেই এ ম্যাচটির বিরোধীতা করে আসছিলেন। তারা মনে করেন, জেরুজালেমে লিওনেল মেসির নেতৃত্বাধীন আর্জেন্টিনার খেলতে আসার অর্থ ফিলিস্তিনে ইসরাইলি আগ্রাসনের পরোক্ষ স্বীকৃতি দেয়া।

এর পরিপ্রেক্ষিতে ফিলিস্তিন ফুটবল ফেডারেশনের প্রধান জিবরিল রাজুব আর্জেন্টাইন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের (এএফএ) প্রধান ক্লদিও তাপিয়াকে লেখা এক চিঠিতে ম্যাচটি বাতিলের আহ্বান জানান।

তিনি অভিযোগ করেন, ইসরাইল খেলাকেও রাজনীতিকীকরণ করছে। তারা এমন একটি মাঠে খেলা আয়োজন করেছে, যেটি ফিলিস্তিনিদের ভূমি দখল করে বানানো। ১৯৪৮ সালে ইসরাইলি বাহিনী ফিলিস্তিনিদের গ্রাম ধ্বংস করে অধিবাসীদের উচ্ছেদ করে টেডি স্টেডিয়াম বানিয়েছিল।