ঈদের আনন্দ নেই ভাঙ্গন কবলিত যমুনা পাড়ের মানুষের মনে

0
82

এইচ এম মোনায়েম খান : চারদিকে চলছে ঈদের আনন্দ। তবে আনন্দ নেই সিরাজগঞ্জের যমুনা নদীর ভাঙ্গনের শিকার অসংখ্য মানুষের। তাদের ঈদ উৎসবে নতুন পোশাক তো দূরের কথা, ভাতও জোটে না। চোখের জলই যাদের ঈদ। নদী ভাঙনের শিকার অসহায় এসব মানুষের কথা তুলে ধরছেন রাজিয়া সুলতানা স্মৃতি, তথ্য ও ভিডিওচিত্র পাঠিয়েছেন সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি এইচ এম মোনায়েম খান।

গত বছর থেকেই সিরাজগঞ্জের এনায়েতপুরের ব্রাহ্মনগ্রাম-আড়কান্দি আর পাচিল গ্রামে নদী ভাঙ্গন শুরু হয়। গত এক মাসের যমুনা নদীর ভাঙ্গনে এনায়েতপুরের অন্তত দেড় শতাধিক পরিবার তাদের বসতবাড়ি হারিয়েছে। আর একই সাথে ভাঙ্গন আতংকে আছে নদী পাড়ে বসবাসরত হাজারো মানুষ।

তাই সারাদেশে ঈদের আমেজ লাগলেও নদী ভাঙ্গন কবলিত এসব মানুষের নেই ঈদের আনন্দ। শেষ আশ্রয়টুকু নদীতে চলে যাওয়ায় তারা এখন নিজেদের একটি মাথা গোজবার ঠাই খুজতেই ব্যস্ত। ভক্স

জোটেনা একবেলা খাবার। তাই ঈদের আলাদা কোনো মানে নেই তাদের কাছে। অনেক গরীব ও মধ্যে বিত্ত পরিবারের সন্তানরা প্রতিদিন সন্ধ্যায় জড়ো হয়ে খোঁজে সত্যিকারের ঈদের চাঁদ। যে চাদ ওঠার পরের দিন থাকবেনা কোন কষ্ট বেদনা আর দারিদ্র।
তবে শাহজাদপুর উপজেলা চেয়ারম্যান সহায়তার আশ্বাস প্রদান করেন। ভাঙ্গন কবলিত মানুষের দাবী রিলিফ নয়, নদী ভাঙ্গনরোধে চাই স্থায়ী সমাধান।