ঈদের নাটকে বিশ্বকাপ

0
76

১৪ জুন থেকে শুরু হচ্ছে বিশ্বকাপ ফুটবল। অন্যদিকে ১৬ বা ১৭ জুন পবিত্র ঈদুল ফিতর। চার বছর পর আসা ফুটবল বিশ্বকাপ আর বছর ঘুরে আসা ঈদের উৎসব একসঙ্গে হওয়ায় খানিকটা চিন্তায় পড়েছে টেলিভিশন কর্তৃপক্ষ। কারণ, বিশ্বকাপ ঘিরে যেমন থাকে নানা ধরনের আয়োজন, তেমনি ঈদ ঘিরেই থাকে ৭-১০ দিনের অনুষ্ঠানমালা। এ কারণেই দুটি উৎসবকে মিলিয়ে অনুষ্ঠান, নাটক ও টেলিছবি নির্মাণের উদ্যোগ নিয়েছে টেলিভিশনগুলো। এরই মধ্যে তার কিছু শুটিং হয়েছে। কিছু আছে নির্মাণাধীন। কিছু আছে পরিকল্পনাতেও।

এর মধ্যে আরটিভির অনুষ্ঠানপ্রধান দেওয়ান শামসুর রকিব জানালেন, বিশ্বকাপ উপলক্ষে তাঁরা দুটি নাটক নির্মাণ করবেন। এর একটি এক ঘণ্টার, আরেকটি সাত পর্বের। এক ঘণ্টার সিগন্যাল নাটকটি নির্মাণ করবেন তপু খান। যেটা প্রচারিত হবে ঈদের আগের দিন রাতে। আর নির্মাতা সাজ্জাদ সুমন নির্মাণ করবেন সাত পর্বের ফুটবল ফারুক। দেওয়ান শামসুর রকিব বললেন, ‘এবার অনুষ্ঠান বা নাটক নির্মাণ করতে গিয়ে বিশ্বকাপ মাথায় রাখতে হচ্ছে। কারণ, দুটি উৎসবই আমাদের যেমন প্রিয়, তেমনি আনন্দেরও।’

ঈদের দিন থেকে বাংলাভিশনে প্রচারিত হবে সাত পর্বের নাটক ফেয়ার প্লে। আবু হায়াত মাহমুদের পরিচালনায় নাটকটিতে অভিনয় করবেন জাহিদ হাসান, চঞ্চল চৌধুরী ও তিশা। এমনটাই জানালেন প্রতিষ্ঠানটির ইনচার্জ (প্রোগ্রাম) তারেক আকন্দ। কিন্তু এসব নাটকেরই শুটিং এখনো শুরু না হলেও চ্যানেল আইয়ের জন্য ১৪ পর্বের একটি নাটকের শুটিং শুরু করেছেন নির্মাতা তারেক মুহম্মদ। ‘দ্য গোল্ড কাপ’নামের এই নাটকে সাবেক দুই ফুটবলারসহ বর্তমান জাতীয় দলের ১১ জন খেলোয়াড় অভিনয় করছেন। আরও অভিনয় করছেন শখ, ফারুক আহমেদ, শাহতাজ, আলভী, আল মনসুর, কামাল হোসেন প্রমুখ। তবে নাটকটিতে জনপ্রিয় অভিনেতা মোশাররফ করিমেরও অভিনয় করার কথা রয়েছে।

এদিকে শিশুতোষ টেলিভিশন চ্যানেল দুরন্ততে প্রচারিত হবে ‘বোতল ভূত’ নামে পাঁচ পর্বের একটি নাটক। হুমায়ূন আহমেদের গল্প অবলম্বনে নাটকটি নির্মাণ করেছেন মেহের আফরোজ শাওন। এই নাটকের মধ্যেও রয়েছে টান টান উত্তেজনার ফুটবল ম্যাচ। এরই মধ্যে নাটকটির শুটিং শেষ করেছেন নির্মাতা।

এ ছাড়া নির্মাতা এস এ অলিক নির্মাণ করেছেন ফুটবলে প্রেম নামের একটি টেলিছবি। ঈদে এটি প্রচারিত হবে এটিএন বাংলায়। অভিনেতা ও নির্মাতা কচি খন্দকারও উদ্যোগ নিয়েছেন ‘মাই ডিয়ার ফুটবল’ নামে একটি নাটক নির্মাণের। এটি প্রচারিত হবে ঈদের পর। বেশ কজন পরিচালক জানিয়েছেন, তাঁরা নাটক নির্মাণের সময় কোনোভাবে ফুটবল রাখার চেষ্টা করছেন। একইভাবে অন্য টেলিভিশন চ্যানেলগুলো উদ্যোগ নিচ্ছে ফুটবল নিয়ে নাটক না হলেও একটা অনুষ্ঠান নির্মাণের। এখন চলছে এর প্রস্তুতি ও পরিকল্পনা।

সব মিলিয়ে বলা যায়, এবারের ঈদের অনুষ্ঠানে ভাগ বসাচ্ছে বিশ্বকাপও। ভাগ বসালেই হতাশ হওয়ার কোনো কারণ নেই, বরং খুশিই হওয়া যায়। কারণ গতানুগতিক গল্পের নাটকের বাইরে ফুটবল-সংক্রান্ত নাটক দেখার সুযোগ পাবেন টেলিভিশন দর্শকেরা।