ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে হাসপাতালে প্রধানমন্ত্রী

0
191

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে দেখতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে গেছেন দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রাজশাহীতে সেনাবাহিনীর একটি অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার পর ঢাকা ফিরে রোববার বেলা সাড়ে ৩টায় মেডিকেলে যান প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী হাসপাতালে পৌঁছে চিকিৎসকদের কাছে ওবায়দুল কাদেরের শারীরিক অবস্থার খোঁজ খবর নেন। এরপর সেখানে কিছু সময় অতিবাহিত করে বেরিয়ে আসেন।

হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে রোববার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয় ৬৭ বছর বয়সী ওবায়দুল কাদেরকে।

মন্ত্রীর জনসংযোগ কর্মকর্তা আবু নাছের জানান, সকালে ফজরের নামাজ শেষে হঠাৎ করেই শ্বাসপ্রশ্বাসে সমস্যা হচ্ছিল। তাৎক্ষণিক তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। সেখানে চিকিৎসকরা তাকে সিসিইউতে (করোনারি কেয়ার ইউনিট) রাখেন।

তার চিকিৎসায় মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়। এরপর এনজিওগ্রাম করা হলে তার রক্তনালীতে তিনটা ব্লক ধরা পড়ে। চিকিৎসকরা বলছেন, তিনটা ব্লকের মধ্যে একটা ক্রিটিক্যাল ব্লক। সেটা সাড়ানো হয়েছে। আরেকটা ব্লক ৮০ শতাংশ আর বাকিটাতে আগে থেকে হার্ট অ্যাটাকের হিস্ট্রি ছিল। সেটা পুরোপুরি ব্লক আছে।

বর্তমানে কৃত্রিমভাবে শ্বাসপ্রশ্বাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে বলেও জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

দুপুরের দিকে ব্রিফিংয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) কার্ডিওলজি বিভাগের প্রধান সৈয়দ আলী আহসান বলেন, ওবায়দুল কাদেরের অবস্থার উন্নতি হয় আবার অবনতি হয়। এরকম ফ্লাকচুয়েশন (ওঠা-নামা) অবস্থায় আছে। ২৪ থেকে ৭২ ঘন্টা না গেলে বলা যাবে না, উনি স্ট্যাবল।

ওবায়দুল কাদেরের শারীরিক অবস্থা সিঙ্গাপুরে নেওয়ার মতো পর্যায়ে নেই বলেও জানান এই চিকিৎসক।  এখনো বলা যাচ্ছে না, এটা সিচুয়েশন বলবে। এখন সিঙ্গাপুর না পাঠানোর পক্ষে মত দেন তিনি।