ওরাল ক্যানসারের এই লক্ষণ সম্পর্কে সতর্ক থাকুন

0
163

জেনে নিন এমন কিছু সমস্যার কথা ওরাল ক্যানসার বা মুখের ক্যানসারের প্রাথমিক উপসর্গ হতে পারে। তাই সমস্যা হলেই দ্রুত ক্যানসার বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিতে হবে।

প্রাথমিক অবস্থায় ধরা পড়লে মুখের ক্যানসার সম্পূর্ণভাবে সারিয়ে তোলা যায়। তবে কোনও বিকল্প চিকিৎসার ব্যবস্থা না নিয়ে ক্যানসার আক্রান্ত অংশকে সমূলে বাদ দেওয়াই স্বীকৃত চিকিৎসা।

মুখের মধ্যে কোনও সাদাটে বা লালচে প্যাচ হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া জরুরি। বিশেষত তিনি যদি স্মোকার বা ধোঁয়াহীন তামাকে আসক্ত হন।

লিউকোপ্লেকিয়া অর্থাৎ সাদাটে প্যাচ হল প্রি ক্যানসারাস স্টেজ। অর্থাৎ, এই জিনিসটা ফেলে রাখলে ভবিষ্যতে ক্যানসার হওয়ার ঝুঁকি থাকে।

গালে বা গলায় কোনও ফোলা অংশ যা বাইরে থেকে বোঝা যাচ্ছে, কিন্তু কোনও ব্যথা বেদনা নেই বললেই চলে।মুখের ভেতরে কোনও ব্যথাহীন ফোলা অংশ আছে, যা ক্রমশ বাড়ছে।

ঠোঁটের ওপর কোনও ক্ষত তৈরি হয়েছে, যা ওষুধ খেয়েও সারছে না। জিভে লাল বা কালো ছোপ পড়েছে। জিভ নাড়াতে অসুবিধে হচ্ছে, কথা বলারও সমস্যা শুরু হয়েছে, হাঁ করতে বা মুখ খুলতে সমস্যা হচ্ছে।

চিবুকের দুপাশে ও গলায় গ্ল্যান্ড ফুলেছে। ঢোঁক গিলতে বা খাবার খেতে অসুবিধা হচ্ছে।