কাতালানিয়ার স্বাধীনতা ঘোষণা, স্বীকৃতি দেবে না ইউরোপ ও অামেরিকা

0
66

স্পেন থেকে আলাদা হয়ে গেল কাতালানিয়া। নিজেদের স্বাধীন ঘোষণা করল তারা। কাতালান পার্লামেন্টের পক্ষ থেকে এই ঘোষণা করা হয়েছে।

শুক্রবার কাতালানের আঞ্চলিক সরকারের স্বাধীনতার দাবি উড়িয়ে দিয়েছেন স্পেনের প্রধানমন্ত্রী মারিয়ানো রজয়। প্রাদেশিক আইনসভা বিলোপ করার পক্ষেই মত দেন স্পেনের প্রধানমন্ত্রী।

স্প্যানিশ পার্লামেন্টে প্রধানমন্ত্রী রজয় অবিলম্বে কাতালানিয়ার প্রাদেশিক সরকার ভেঙে দেওয়া হবে বলে জানান। কাতালান কর্তৃত্ব জারি করতে সংবিধানের ১৫৫ ধারা জারি করা হচ্ছে। এই ধারা অনুযায়ী কেন্দ্রীয় সরকারের শাসন প্রতিষ্ঠা হবে কাতালানে।

যদিও প্রাদেশিক সরকারের প্রধান এই দাবি মানতে সম্মত হননি। পার্লামেন্টে স্পেনের প্রধানমন্ত্রীর ভাষণের পরই আবারও উতপ্ত হয়ে ওঠে স্পেনের রাজ্য কাতালানিয়া। নিজেদের স্বাধীনতা ঘোষণা করে তারা। তাদের এমন সিদ্ধান্তে স্পেনের বার্সেলোনা ক্লাবের মালিকানা হারাল স্পেন।

বিশ্বখ্যাত বার্সেলোনা ফুটবল ক্লাবটি কাতালানিয়ায় হওয়ায় এ ক্লাবের খেলোড়রা এবার কোন টুর্নামেন্টে খেলবেন তা নিয়ে বেশ আগ্রহ বিশ্ব বাসীর।

এদিকে ইউরোপের বড় বড় শক্তি কাতালানিয়ার স্বাধীনতাকে স্বীকৃতি না দেওয়ার কথা জানিয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রও তাদের স্বাধীনতাকে স্বীকৃতি না দেওয়ার পক্ষে রয়েছে। এছাড়া স্পেনের সার্বভৌমত্বের প্রতি একাত্মতা প্রকাশ করেছে জার্মানি। অন্যদিকে স্পেনের প্রধানমন্ত্রীর সিদ্ধান্তে সমর্থন দিয়েছে ফ্রান্স।

স্পেনের অখণ্ডতা অটুট রাখা ও তাদের সংবিধান সমুন্নত থাকার পক্ষে ব্রিটেন। তাই স্বীকৃতি দেবে না বলে জানিয়ছে। অভিন্ন স্পেনের প্রত্যাশা করেছে ব্রিটেন। যে গণভোটের উপর ভিত্তি করে কাতালানিয়ার স্বাধীনতা ঘোষিত হয়ে তা বৈধ নয় বলে ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’র মুখপাত্র জানিয়েছেন।

এদিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রও কাতালানিয়া স্পেনের অখণ্ড অংশ। তাই তারা কাতালানদের স্বীকৃতি দেবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে। বড় কোনো বিদেশী রাষ্ট্রের কোনো স্বীকৃতি বা সমর্থন না পেলেও স্বাধীনতা প্রশ্নে অনড় কাতালানের বড় একটি অংশ।