কান জয় করল জাপানের ‘শপলিফটার্স’

0
62

শেষ হলো চলচ্চিত্রের সবচেয়ে বড় আসর। শনিবার ফ্রান্সের স্থানীয় সময় রাত সাড়ে আটটার দিকে এক জাঁকজমক সমাপনী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শেষ হয়েছে ৭১তম কান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। সমাপনী অনুষ্ঠানে কান উৎসবের মূল প্রতিযোগিতা বিভাগের বিজয়ীদের নাম ঘোষণা হয়।

২০১৮ সালের কান উৎসবের সবচেয়ে সম্মানজনক পাম দ’র (স্বর্ণপাম) পুরস্কার জিতে নেয় জাপানের ছবি ‘শপলিফটার্স’। ফ্রান্সের সাগরঘেঁষা শহর কানের পালে দো ফেস্টিভ্যালের গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়েরে বসে তারকাবহুল এই আয়োজন।

মিলনায়তনভর্তি মানুষের সামনে উৎসবের শেষ রাতের সবচেয়ে বড় পুরস্কার বিজয়ীর নাম ঘোষণা করেন এবারের জুরিবোর্ডের প্রধান হলিউড অভিনেত্রী কেট ব্ল্যানচেট।

পুরস্কার অনুষ্ঠান শেষ হতেই শুরু হয় উৎসবের সমাপনী ছবি ব্রিটিশ নির্মাতা ট্যারি গিলিয়ামের ‘দ্য ম্যান হু কিলড ডন কেয়োটি’।

তবে সাংবাদিকদের জন্য এবারের জুরি সদস্যরা ছবি দেখা বাদ দিয়ে যোগ দেন সংবাদ সম্মেলনে। সেখান জানানো হয় বিজয়ী ছবিগুলো নির্বাচনের পেছনের কথা। সংবাদ সম্মেলনে জুরিবোর্ডের প্রধান কেট ব্ল্যানচেট বলেন, ‘খুব কঠিন ছিল সেরা ছবি বাছাই করা। কারণ, একেক ছবির ভাষা একেক রকম ছিল। কোনো ছবি ছিল রাজনৈতিক, কোনোটা মানবিক, কোনোটা আবার আবেগপ্রবণ। তবে এই উৎসবের জন্য সেরা ছবি বাছাই করতে অনেক নিয়ম মানতে হয়। আমরা সে নিয়ম অনুযায়ী এগিয়েছি। আমি খুব সৌভাগ্যবান যে এবারে আমি পেয়েছি একটি অহংবোধহীন কিছু সহকর্মী। তাঁদের কারণেই কঠিন এ কাজটি সফল হয়েছে।’

সমাপনী অনুষ্ঠানে অন্য পুরস্কার বিজয়ীরা হলেন
গ্রাঁ প্রি: মার্কিন নির্মাতা স্পাইক লি; ‘ব্ল্যাকক্লানসম্যান’
জুরি প্রাইজ: নাদিন লাবাকি; ‘কেপারনাউম’
সেরা পরিচালক: পাভেল পাভলিকভ্স্কি; ‘কোল্ড ওয়ার’
সেরা অভিনেতা: মার্চেলো ফন্তে; ‘ডগম্যান’
সেরা অভিনেত্রী: সামাল ইয়েসলিয়ামোভা; ‘আইকা’
সেরা চিত্রনাট্যকার: (যৌথভাবে) অ্যালিস রোরওয়াচার, ‘হ্যাপি অ্যাজ লাৎজারো’; জাফর পানাহি ও সাইভার; ‘থ্রি ফেসেস’

সন্ধ্যায় দেওয়া হয় একটি বিশেষ স্বর্ণপাম। ‘দ্য ইমেজ বুক’ ছবির জন্য এটি ঘরে তোলেন কিংবদন্তি ফরাসি নির্মাতা জ্যঁ লুক গদার। যদিও কান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবকে বর্জন করায় তিনি আয়োজনে ছিলেন না। পুরস্কারটি তাঁর এক মুখপাত্র গ্রহণ করেছেন।

শনিবার সন্ধ্যায় ঘোষণা করা হয় কান চলচ্চিত্র উৎসবের আরও দুটি সম্মানজনক পুরস্কার। একটি হলো ফিপ্রেসকি, যেটি জেতে লি চ্যাং-দংয়ের দক্ষিণ কোরীয় ছবি ‘বার্নিং’। আর অপর পুরস্কারটি হলো ক্যামেরা দ’র। বেলজিয়ামের ছবি ‘গার্লস’-এর চিত্রগ্রহণের জন্য এটি জিতেছেন লুকাস ডন্ট। ছবিটি এ বছরের আঁ সারতেঁ রিগারে সর্বোচ্চ পুরস্কারও জিতেছে।

গত ৮ মে থেকে ভূমধ্যসাগরের পাড়ে শুরু হয় ৭১তম কান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব। শনিবারের পর থেকে অপেক্ষা আবার আগামী মে মাসের।