কুয়েতে খাদেম ভিসা বন্ধ থাকলেও কিছু অসাধু চক্রে প্রতারিত হচ্ছেন অনেকেই

0
79

মাহবুব সৈকত ও আল আমিন:

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কুয়েত, বাংলাদেশের জন্যে অন্যতম শ্রম বাজার। দেশটির শ্রমবাজারের অংশ হতে আছে বিভিন্ন ধরনের ভিসা।

তবে অনিয়মের অভিযোগ এনে খাদেম ভিসা আপাতত বন্ধ করে দিয়েছে দেশটি। তবে কিছু অসাধু চক্রের যোগাসাজশে ভিসা নিয়ে প্রতারিত হচ্ছেন অনেকেই।

আর দেশের সুনাম যেন ক্ষুন্ন না হয়, সেজন্য দোষীদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিয়েছো প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়।

জীবন এবং জীবিকার তাগিদে প্রতি দিনই প্রবাসে পাড়ি জমান অনেক বাংলাদেশি। মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কুয়েত, বাংলাদেশের জন্যে অন্যতম শ্রম বাজার ।

তেল সমৃদ্ধ এই দেশটিতে রয়েছে প্রায় তিন লাখ বাংলাদেশি । কনস্ট্রাকশন, হোটেল, ড্রাইভিং, কোম্পানি এবং খাদেমসহ কুয়েতে রয়েছে বেশ কয়েক ধরনের ভিসা। এর মধ্যে অনিয়মের অভিযোগ এনে খাদেম ভিসা আপাতত বন্ধ করে দিয়েছে দেশটি।

তথ্যানুযায়ী, কুয়েতের পরিবার প্রতি যে কোন দেশ থেকে এক জন করে খাদেম বা গৃহকাজের শ্রমিক নিয়োগ দিতে পারার নিয়ম থাকলেও বাংলাদেশ থেকে গিয়েছে একাধিক শ্রমিক। আর এর পিছনে রয়েছে উভয় দেশের অসাধু ব্যাক্তি।

অভিযোগ রয়েছে বেশির ভাগে ক্ষেত্রেই জনশক্তি রপ্তানীতে অতিরিক্ত অর্থ আদায় করে থাকে এজেন্সিগুলো। প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি অনেক ক্ষেত্রে ব্যাক্তিও জরিয়ে যাচ্ছে অবৈধ ভাবে জনশক্তি রপ্তানীর কাজে। যার ফলশ্রতিতে খাদেম ভিসা বন্ধ হলো কুয়েতের ।

যদিও এ নিয়ে উদ্বিগ্ন না হতে পরামর্শ কুয়েতের বাংলাদেশ দুতাবাসের। তবে বিষয়টিকে কোন ভাবেই হালকা করে দেখার পক্ষে নয় বিশ্লেষকরা। বাংলাদেশের ভাবমুর্তি বিনষ্টকারীদের ব্যাক্তিদের আইনের আওতায় আনার দাবী সাধারনেরও ।

শ্রববাজর আরো উন্মুক্ত করতে কুটনৈতিক তৎপরতার পাশাপাশি অসাধু চক্রকে চিহ্নিত করার কথাও জানান প্রবাসি কল্যান মন্ত্রী। যেভাবে যাওয়া কথা ছিল সেখাবে না যাওয়ার কারণে এমন সংকট তৈরি হচ্ছে।

তবে কুযেতসহ শ্রমের জন্য প্রবাসে যাওয়ার আগে যাচাই বাছাই করে যাওয়ার পরামর্শ নুরুল ইসলাম বিএসসির।সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টা দেশের সুনাম প্রবাসেও অক্ষুন্ন থাকবে বলে আশাবাদি সবাই।