খালেদা জিয়ার রায় নিয়ে নৈরাজ্য হলে, জনগণ প্রতিহত করবে: ওবায়দুল কাদের

0
105

খালেদা জিয়ার মামলার রায়কে ঘিরে নৈরাজ্যকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করলে জনগণই তা প্রতিহত করবে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

খালেদা জিয়ার মামলার রায়ের আগে বিএনপি নেতারা হুমকি দিয়ে আদালত অবমাননা করেছেন বলেও মনে করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক।

রোববার নারায়ণগঞ্জ সদরের গোগনগর কয়লাঘাট এলাকায় তৃতীয় শীতলক্ষ্যা সেতুর প্রথম পিলারের পাইলিং কাজের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেন তিনি।

জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় আগামী ৮ ফেব্রুয়ারি রায়ের তারিখ নির্ধারিত রয়েছে। দোষ প্রমাণিত হলে তার সর্বোচ্চ যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হতে পারে। রায়ে খালেদা জিয়ার সাজা হলে আন্দোলনের মাধ্যমে সরকারের পতন ঘটানো হবে বলে বিএনপি নেতারা হুমকি দিয়েছেন।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী কাদের বলেন, রায় কি সরকার দেবে? রায় দেবে আদালত। আদালতকে জিজ্ঞেস করুন। এই প্রশ্নের জবাব তো আমি দিতে পারব না। কী রায় হবে, তার আগেই বিএনপির মহাসচিব ফখরুল ইসলামসহ বিএনপি নেতারা আদালতকে হুমকি দিতে শুরু করেছেন। এটা তারা পারেন না, আদালতকে হুমকি দিচ্ছেন। তার মানে তারা অলরেডি কনটেম্পট করে ফেলেছেন। আদালত অবমাননা করেছেন।

তিনি আরও বলেন, এবার মোকাবেলা করতে সরকার লাগবে না। জনগণই তাদেরকে প্রতিরোধ করবে। এবারও তারা নির্বাচনে না গেলে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতার ফাঁদ তৈরি হবে। এটা যদি তারা ভেবে থাকেন তাহলে তারা বোকার স্বর্গে বাস করছেন। অনেকেই আসবেন এবারের নির্বাচনে। বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতার নির্বাচন হবে না। সেখানে অনেক দল অংশ নিবে।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সংসদ সদস্য এ কে এম সেলিম ওসমান, এ কে এম শামীম ওসমান, প্রকল্প পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ইফতেখার আনিস, অতিরিক্ত মহাপরিচালক কর্নেল মো. তৌহিদ হোসেন, উপ-মহাপরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোহাম্মদ মাসফিকুল আলম, জেলা প্রশাসক রাব্বী মিয়া ও পুলিশ সুপার মইনুল হক।