খালেদা জিয়ার স্বাক্ষর সংগ্রহ করতে অসহযোগীতা করছে কারা কর্তৃপক্ষ: রিজভী

0
48

বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভী অভিযোগ করেন, মামলায় আইনী লড়াইয়ের জন্যে খালেদা জিয়াকে ওকালত নামায় স্বাক্ষর সংগ্রহ করতে অসহযোগীতা করছে কারা কর্তৃপক্ষ। শুক্রবার বিএনপির দলীয় কেন্ত্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন রিজভী।

বেগম খালেদা জিয়ার জামিন বিলম্বিত করতে তার ওকালতনামায় সই নিতে বাধা হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব। সরকার বেগম খালেদা জিয়াকে বন্দী করে রেখে যে ‘ভয়ানক’ ফন্দি আঁটছে এবং এটা এখন সুস্পষ্ট হয়ে উঠছে বলেও মনে করেন রিজভী।

আগামী নির্বাচন নিয়ে ভোটারদের ধোঁকা দিতে, প্রধানমন্ত্রীর একদলীয় রাজত্ব কায়েম করতে, নিজেকে সম্রাজ্ঞী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে, জাতীয় অর্থনীতি লুটপাট করে দলের সোনার টুকরো ছেলেদের পেট ভরাতে তিনি সেই ফন্দি করছেন বলেও অভিযোগ তার।

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে বিএনপিপন্থীদের জয়কে বিচারঙ্গনে সরকারি ‘হস্তক্ষেপের’ প্রতিবাদ বলেও মনে করেন বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভী।

বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব বলেন, ‘দেশের বিচার বিভাগের এই চরম সংকটে সর্বোচ্চ আদালতের আইনজীবীরা সঠিক রায় দিয়ে বিচারালয়ে সরকারি নোংরা খেলার দ্ব্যর্থহীন প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

দেশের সর্বোচ্চ আদালত সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির ২০১৮-১৯ মেয়াদের নির্বাচনে গত কয়েক বছরের ধারাবাহিকতায় আবার জয় পেয়েছে বিএনপি-জামায়াত সমর্থিত জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য (নীল) প্যানেল।

এবারের নির্বাচনে ১৪টি পদের মধ্যে সভাপতি-সম্পাদকসহ ১০টি পদে জয়লাভ করেছে নীল প্যানেল। অন্যদিকে একটি সহসম্পাদকসহ চারটি পদে জিতেছে আওয়ামী লীগ সমর্থিত সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ (সাদা)।

গত বছরের নির্বাচনে বিএনপিপন্থীরা পেয়েছিল আটটি পদ, আর আওয়ামী লীগপন্থীরা পেয়েছিল ছয়টি পদ।

অবশ্য আগের দিন প্রকাশিত ভোটে রাজশাহী আইনজীবী সমিতির নির্বাচনে ভরাডুবি হয় জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য পরিষদের। সেখানে ২১ পদের বিপরীতে সভাপতি-সম্পাদকসহ ১৮ পদেই জয় পেয়েছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত সম্মিলিত আইনজীবী সমন্বয় পরিষদ।

রিজভী সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতিতে নির্বাচিতদের অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, ‘আমি বিএনপির পক্ষ থেকে তাদের এবং তাদেরকে যারা ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছেন তাদের অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানাচ্ছি।’

‘এ বিজয় দেশের বিচারঙ্গনে সরকারি নগ্ন হস্তক্ষেপের প্রতিবাদ। দেশের বিচার বিভাগের এই চরম সংকটে সর্বোচ্চ আদালতের আইনজীবীরা সঠিক রায় দিয়ে বিচারালয়ে সরকারি নোংরা খেলার দ্ব্যর্থহীন প্রতিবাদ জানিয়েছেন।’

রিজভী বলেন, ‘কিন্তু আমাদের বিচার বিভাগ সরকারি প্রভাবমুক্ত নয়। বরং বিচার বিভাগ সরকারের ইচ্ছা-পূরণেরই হাতিয়ার হিসেবে কাজ করছে। প্রহসনের বিচারের মাত্রা দিনকে দিন বেড়েই চলেছে।’

‘বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মামলায় সরকার একের পর এক হস্তক্ষেপ করে যে নোংরা খেলা তারা খেলছে, তা দেখে গোটা জাতি শুধু বিস্মিত নয় ঘৃনায় ধিক্কার জানাচ্ছে।’