গোলাপি ঠোঁট পেতে চাইলে বদলাতে হবে এই অভ্যাসগুলো

0
110

ঠোঁট কালো বা ফ্যাকাসে হলে মোটেই দেখতে ভাল লাগে না। গোলাপী ঠোঁটই স্বাস্থ্যকর ঠোঁটের পরিচয়। তবে জানেন কি ঠোঁট কালো হয়ে যাওয়ার জন্য আমাদেরই কিছু খারাপ অভ্যাস দায়ী। জেনে নিন কী সেই অভ্যাস আর দ্রুত তা বদলে ফেলুন।

আর্দ্রতা হারালে ঠোঁট বিবর্ণ হয়ে যায়। ঠোঁটের রং কালো হয়ে যায়। তাই ঠোঁটের আর্দ্রতা সব সময়ই ধরে রাখা উচিত এর জন্য ভাল লিপবাম খুব কাজের হতে পারে। তবে আমরা অনেকেই লিপবাম সঠিক প্রয়োগ করি না। ঠোঁটকে শুষ্ক হতে দিই।

ঠোঁটের ত্বক খুবই পাতলা হওয়ায় দরুণ খুব দ্রুত তা শুষ্ক হয়ে ফেটে যায়। ঠোঁটকে ভাল রাখতে তাই প্রতিনিয়ত মরা কোষ দূর করা দরকার। আমরা কি তা আদৌ করি?

শুধু কি দেহের চামড়াই রোদে পুড়ে যায়? ঠোঁটেও একইভাবে সানবার্ন হয়। অতি বেগুনি রশ্মি থেকে তাই ঠোঁটকে রক্ষা করা খুব জরুরি। খুব বেশি রোদে ঘোরাঘুরি করবেন না।

প্রতিনিয়ত ধূমপানের অভ্যাসও কালো ঠোঁটের একটা বড় কারণ। সিগারেটের নিকোটিন ঠোঁটে প্রবেশ করে বিবর্ণ করে তোলে ঠোঁটকে।

সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ঠোঁটের যত্ন না নেওয়ার অভ্যাস। আমরা যতটা মুখের ত্বকের উপর নজর দিই, তার বিন্দুমাত্রও কিন্তু ঠোঁটের দিকে দিই না। সুন্দর গোলাপি ঠোঁট পেতে এই অভ্যাসও বদলাতে হবে।