গ্রাহকদের ক্ষতি পুষিয়ে দিচ্ছে অ্যাপল

0
129

আইফোনে ধীর গতি আনার বিষয়ে ক্ষমা চাওয়ার পর দ্রুত পদক্ষেপ নিয়েছে অ্যাপল। ওয়ারেন্টি শেষ হয়েছে এমন আইফোনের ব্যাটারি পরিবর্তন করতে ৭৯ মার্কিন ডলারের পরিবর্তে ২৯ ডলার নেওয়া হবে। আইফোন ৬ বা এর পরবর্তী মডেলগুলোর জন্য এটি প্রযোজ্য হবে বলে বিবৃতিতে জানানো হয়।

২০১৮ সালের জানুয়ারির শেষ দিকে কম মূল্যে ব্যাটারি পরিবর্তন সেবা চালু করার কথা ছিল মার্কিন প্রযুক্তি জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানটির। পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করে তাৎক্ষণিকভাবে সেবা চালু করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট ভার্জ-কে অ্যাপল জানায়, “ধারণা করেছিলাম আমাদের প্রস্তুত হতে আরও বেশি সময় লাগবে, কিন্তু আমরা আনন্দিত যে এখন থেকেই আমরা গ্রাহকদেরকে কম মূল্যে ব্যাটারি পরিবর্তন করে দিতে পারছি।”

প্রতিষ্ঠানটি আরও জানায়, “প্রথম পর্যায়ে পরিবর্তিত ব্যাটারির সরবরাহ সীমিত হবে।”

সম্প্রতি আইফোনে ধীর গতির কারণ ব্যাখা করতে গিয়ে অ্যাপল জানায়, তাদের অ্যালগরিদম এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে যাতে ব্যাটারিতে চার্জ কম থাকলেও ডিভাইসটি পুরোপুরি বন্ধ না হয়ে সন্তোষজনক কার্যক্ষমতা দিতে পারে।

এর ফলে কিছু গ্রাহক ধারণা করেছেন, তারা যাতে নতুন আইফোনে আপগ্রেড করেন সে কারণেই পুরানো আইফোনে ধীর গতি আনা হয়েছে।

এর আগে রেডিট-এর এক প্রতিবেদনে বলা হয়, কয়েক বছর ব্যবহারের পর প্রসসরের ক্লক স্পিড কমিয়ে দেয় আইফোন। এটি অ্যাপল ইচ্ছাকৃতভাবেই করেছে বলে জানানো হয়।