চেহেলের তৃতীয় শিকার মুশফিক

0
66

নিজের শেষ ওভারে ফিরে আঘাত হানলেন যুজবেন্দ্র চেহেল। ফিরিয়ে দিলেন মুশফিকুর রহিমকে। লেগ স্পিনারের ওপর চড়াও হতে চেয়েছিলেন মুশফিক। ডানহাতি ব্যাটসম্যান বেছে নিয়েছিলেন ভুল বল।

গুগলি উড়াতে গিয়ে দেন ক্যাচ। ঝাঁপিয়ে দারুণ এক ক্যাচ নেন বিজয় শঙ্কর। ১২ বলে ৯ রান করেন মুশফিক। তার বিদায়ের সময় ১০.১ ওভারে বাংলাদেশের স্কোর ৬৮/৪।

পাওয়ার প্লেতে তিন উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়েছে বাংলাদেশ। ফিরে গেছেন লিটন দাস, তামিম ইকবাল ও সৌম্য সরকার। ৬ ওভার শেষে বাংলাদেশের স্কোর ৪০/৩।

আঁটসাঁট প্রথম ওভারের পর দ্বিতীয় ওভারে লিটনকে বিদায় করেন অফ স্পিনার ওয়াশিংটন সুন্দর। নিজের প্রথম ওভারে তামিম ও সৌম্যর উইকেট তুলে নেন লেগ স্পিনার যুজবেন্দ্র চেহেল।

তামিম ইকবালের পর সৌম্য সরকারেকও ফিরিয়ে দিলেন যুজবেন্দ্র চেহেল। লেগ স্পিনার এক ওভারে দুই উইকেট নিয়ে বিপদে ফেললেন বাংলাদেশকে।

স্কয়ার লেগ ফিল্ডার বরবর সুইপ করেন সৌম্য। শিখর ধাওয়ান দুই হাতে জমান বাঁহাতি ব্যাটসম্যানের ক্যাচ। ২ বলে ১ রান করে ফিরে যান সৌম্য। সৌম্য ফেরার সময় ৫ ওভারে বাংলাদেশের স্কোর ছিল ৩৩/৩।

নিজের প্রথম ওভারেই আঘাত হানলেন যুজবেন্দ্র চেহেল। ফিরিয়ে দিলেন বাঁহাতি ওপেনার তামিম ইকবালকে।

লং অন দিয়ে লেগ স্পিনারকে উড়াতে চেয়েছিলেন তামিম। দুই হাত ওপরে তুলে সীমানায় দারুণ এক ক্যাচ নেন শার্দুল ঠাকুর। সীমানা দড়ির খুব কাছে থাকা ফিল্ডার দারুণ দক্ষতায় ভারসাম্য রক্ষা করে নিশ্চিত করেন তামিমের বিদায়। ১৩ বলে ১৫ রান করে ফিরেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান।

তামিম ফেরার সময় ৪.২ ওভারে বাংলাদেশের স্কোর ছিল ২৭/২।

প্রথম ওভারে আঁটসাঁট বোলিং করা ওয়াশিংটন সুন্দর আঘাত হানলেন দ্বিতীয় ওভারে। তরুণ অফ স্পিনার ফিরিয়ে দিলেন লিটন দাসকে।

অফ স্টাম্পের বাইরের বল স্লগ সুইপ করে উড়াতে চেয়েছিলেন লিটন। ব্যাটের কানায় লেগে উঠে যাওয়া সহজ ক্যাচ তালুতে জমান সুরেশ রায়না। ৯ বলে এক ছক্কায় ১১ রান করে ফিরেন লিটন।

৪ ওভার শেষে বাংলাদেশের স্কোর ২৭/১।

বাংলাদেশের বিপক্ষে শেষ ম্যাচে খেলা ভারত দলে এসেছে একটি পরিবর্তন। সেই ম্যাচে খেলা মোহাম্মদ সিরাজ বাদ পড়েছেন। দলে ফিরেছেন আরেক পেসার জয়দেব উনাদকাট।

ভারত দল: রোহিত শর্মা, শিখর ধাওয়ান, লোকেশ রাহুল, সুরেশ রায়না, মনিশ পান্ডে, দিনেশ কার্তিক, ওয়াশিংটন সুন্দর, যুজবেন্দ্র চেহেল, বিজয় শঙ্কর, শার্দুল ঠাকুর, জয়দেব উনাদকাট।

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে প্রাথমিক পর্বের শেষ ম্যাচে খেলা দলটির ওপর আস্থা রেখেছে বাংলাদেশ। ফাইনালে খেলছে একই একাদশ নিয়ে। সাকিব আল হাসানের সঙ্গে স্পিন আক্রমণে আছেন মেহেদী হাসান মিরাজ ও নাজমুল ইসলাম অপু। পেস আক্রমণে রুবেল হোসেনের সঙ্গী মুস্তাফিজুর রহমান।

বাংলাদেশ দল: সাকিব আল হাসান, মাহমুদউল্লাহ, তামিম ইকবাল, সৌম্য সরকার, লিটন দাস, মুশফিকুর রহিম, সাব্বির রহমান, মুস্তাফিজুর রহমান, রুবেল হোসেন, নাজমুল ইসলাম অপু, মেহেদী হাসান মিরাজ।

টানা তিন ম্যাচে টস জেতার পর এবার টস ভাগ্যকে পাশে পেলেন না বাংলাদেশ অধিনায়ক। ফাইনালে টস জিতে ফিল্ডিং নিয়েছেন ভারত অধিনায়ক রোহিত শর্মা। তিনি মনে করছেন সময় গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে ব্যাটিংয়ের জন্য ভালো হবে উইকেট।

শুরুতে ব্যাটিং করা নিয়ে আপত্তি নেই সাকিব আল হাসানের। তিনি মনে করছেন, দুই ইনিংসেই উইকেট প্রায় একই রকম থাকবে। প্রথম ইনিংসে ব্যাটসম্যানদের কাছ থেকে বড় স্কোর চাইলেন বাংলাদেশের অধিনায়ক।

পঞ্চমবারের মতো কোনো টুর্নামেন্টের ফাইনালে খেলছে বাংলাদেশ। আগের চারবারই শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে হারা দলটি উন্মুখ প্রথমবারের মতো শিরোপা ঘরে নিতে।

দুইবার শ্রীলঙ্কার কাছে ত্রিদেশীয় ওয়ানডে সিরিজের ফাইনালে হারের তেতো স্মৃতি আছে বাংলাদেশের। পাকিস্তানের কাছে একবার হেরেছে এশিয়া কাপের ফাইনালে।

ভারতের বিপক্ষে দ্বিতীয়বারের মতো কোনো টুর্নামেন্টের ফাইনালে খেলছে বাংলাদেশ। ২০১৬ সালে দেশের মাটিতে এশিয়া কাপ টি-টোয়েন্টির সেই শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে হেরেছিল তারা।

এবারের টুর্নামেন্টের দুই ম্যাচসহ ভারতের বিপক্ষে খেলা সাত টি-টোয়েন্টি খেলে সবকটিতে হেরেছে বাংলাদেশ। এক সঙ্গে দুই লক্ষ্য পূরণের হাতছানি সাকিব আল হাসানদের সামনে। প্রথমবারের মতো ভারতের বিপক্ষে জয়, সঙ্গে প্রথম শিরোপা।

কলম্বোর আর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে ফাইনাল শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে সাতটায়।