জানমালের ক্ষতি সাধিত হলে তা প্রতিহত করবে সরকার: অামির হোসেন আমু

0
70

আন্দোলনের নামে জালাও পোড়াও কিংবা জনগণের জানমালের ক্ষতি সাধিত হলে তা প্রতিহত করবে সরকার।সচিবালয়ে আইনশৃঙ্খলা বিষয়ক মন্ত্রিসভা কমিটির মাসিক বৈঠক শেষে কমিটির সভাপতি আমীর হোসেন আমু একথা বলেন। এ সময় মাদক নিয়ন্ত্রণ ও আইনশৃঙ্খলা বিষয়েও আলোচনা করা হয়। রাজধানীতে যে কোনো সহিংসতা

সভায় জানানো হয়, মাদক ব্যবসায়ী ও মাদক সেবী মিলে গত বছর ডিসেম্বর পর্যন্ত ১০ হাজার ১২৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ৩১ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতীয় সংসদে মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান চালানোর নির্দেশ দেওয়ার পর আজকের সভায় প্রায় পুরো সময় জুড়ে মাদক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়।

সভায় সভাপতিত্ব করেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু। এতে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক, নৌ পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন এবং আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সভা শেষে আমির হোসেন আমু সাংবাদিকদের বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে যা যা করা দরকার সরকার করবে। মাদক ব্যবসায়ীদের তালিকা তৈরি করে জনসম্মুখে প্রকাশ করা হবে। গত এক বছরে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নতি হয়েছে। তবে মাদক নিয়ে সরকার উদ্বিগ্ন।

তিনি জানান, মাদক ব্যবসায়ী ও গডফাদারদের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে দেওয়া তালিকার ভিত্তিতে ৮৬০ জনের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। এর মধ্যে কারাগারে রয়েছে ১৮৮ জন।

শিল্পমন্ত্রী বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে ঝুঁকিপূর্ণ জায়গাগুলোকে সামনে রেখে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। মাদকের কুফল সম্পর্কে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও মসজিদে যেভাবে আলোড়ন তৈরি করা যায় তা মাথায় রেখে কর্মপরিকল্পনা নেওয়া হচ্ছে।