সাব্বির ঝড় তুলে ফিরে গেলেন

0
100

মাত্র এক রানে নেই ১ উইকেট হারিয়ে চরম বিপদে পড়ে যাওয়া দলকে খেলায় ফেরাতে একটু বেশি আক্রমণাত্মক খেলেছেন সাব্বির রহমান রুম্মন।

একের পর এক বাউন্ডারি হাঁকিয়ে যাওয়া রুম্মন ফেরেন মাত্র ১৩ রানে। ৯ বলে তিন চার হাঁকান বাংলাদেশ দলের এই টপঅর্ডার ব্যাটসম্যান। সিরিজ বাঁচানোর লড়াইয়ের ম্যাচে ব্যাটিংয়ে নেমেই বিপর্যয়ে পড়ে যায় বাংলাদেশ দল।

স্কোর বোর্ডে মাত্র ১ রান জমা করতেই ফিরে যান পেনার লিটন কুমার দাস। শাপুর জাদরানের গতির বলে রশিদ খানের হাতে ক্যাচ তুলে দিয়ে সাজঘরে ফেরেন লিটন। দলীয় ৩০ রানে ফেরেন তিনে ব্যাটিংয়ে নামা সাব্বির। পঞ্চম ওভারে সামিউল্লাহ সেনোয়ারিকে বাউন্ডারি হাঁকাতে গিয়ে মোহাম্মদ নবীর হাতে ধরা পড়েন সাব্বির।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচ সিরিজের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে বাদ পড়ে গেলেন আবুল হাসান রাজু ও পেস বোলার আবু জায়েদ রাহী। তাদের পরিবর্তে দলে নেয়া হয়েছে ওপেনার সৌম্য সরকার ও পেস বোলার আবু হায়দার রনি।

দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে টসে জিতে আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সাকিব আল হাসান। ভারতের দেরাদুনের রাজীব গান্ধী আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে খেলাটি হচ্ছে। এর আগে রোববার সিরিজের প্রথম ম্যাচে আফগানদের করা ১৬৭ রানের জবাবে ১২২ রানেই অলআউট হয়ে যায় সাকিব বাহিনী।

যে কারণে আজকের ম্যাচটি সাকিবদের জন্য সিরিজ বাঁচানোর ম্যাচ। এদিন হেরে গেলে ট্রফি হাতছাড়া হয়ে যাবে টাইগারদের। সিরিজের শেষ ম্যাচটি একই ভেন্যুতে ৭ জুন অনুষ্ঠিত হবে।

যুদ্ধবিধ্বস্ত আফগানদের বিপক্ষে এই প্রথম দ্বিপক্ষীয় কোনো সিরিজে মুখোমুখি হচ্ছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। দ্বিপাক্ষিক সিরিজে এর আগে আফগানিস্তানের বিপক্ষে একটি মাত্র ওয়ানডে সিরিজ খেলে বাংলাদেশ।

২০১৬ সালে ঢাকায় অনুষ্ঠিত সেই সিরিজে ২-১ ব্যবধানে জিতে নেয় স্বাগতিকরা। দুদলের টি-টোয়েন্টি খেলার রেকর্ডও মাত্র একটি। ২০১৪ সালে ঢাকায় অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ম্যাচে অনেকটা হেসেখেলে জয় পেয়েছিল টাইগাররা।

ওই ম্যাচে আফগানদের বিপক্ষে ৯ উইকেটের বড় জয় তুলে নিয়েছিল বাংলাদেশ। তবে ক্রিকেটপ্রেমী ও বিশেষজ্ঞদের মতে, আগের সেই আফগানিস্তান এখন আর নেই।

এই চার বছরে অনেক উন্নতি করেছে আফগানরা। রশিদ খানের মতো বিশ্বমানের লেগস্পিনার আর মোহাম্মদ নবীর মতো অভিজ্ঞ অলরাউন্ডারদের মোকাবেলা করবে টাইগাররা।