টাইগারদের সংগ্রহ ৫১৩ রান, ব্যাটিংয়ে শ্রীলঙ্কা

0
90

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে চট্টগ্রাম টেস্টের দ্বিতীয় দিন সবকটি উইকেট হারিয়ে প্রথম ইনিংসে ৫১৩ রান সংগ্রহ করেছে বাংলাদেশ। জবাবে ব্যাটিংয়ে নামা শ্রীলঙ্কা শুরুতে উইকেট হারালেও মেন্ডিস ও ডি সিলভার ব্যাটে ঘুরে দাঁড়িয়েছে।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ২৮ ওভার শেষে ১ উইকেট হারিয়ে ১০৭ রান করেছে শ্রীলঙ্কা। ব্যাটিংয়ে আছেন কুশাল মেন্ডিস (৪৬) ও ধনাঞ্জয়া ডি সিলভা (৬১)।

দলীয় তৃতীয় ওভারে কোনো রান না করা দিমুথ করুনারত্নেকে স্লিপে থাকা ইমরুল কায়েসের ক্যাচে পরিণত করান মেহেদি হাসান মিরাজ। এ সময় লঙ্কানরাও কোনো রান তুলতে পারেনি।

এর আগে ১২৯.৫ ওভার খেলে টাইগাররা প্রথম ইনিংসে ৫১৩ রানের সংগ্রহ পায়। ১৩৪ বলে সাতটি চার ও দুটি ছক্কায় ৮৩ ‍রান করে অপরাজিত থাকেন মাহমুদউল্লাহ। এই টেস্টে ১৩৩১ রান নিয়ে ব্যাটিংয়ে নামা মিডঅলঅর্ডার এ ব্যাটসম্যান ক্যারিয়ারে ২ হাজার রান পূর্ণ করেন (৬৭ ইনিংস)। একই টেস্টে মুমিনুল ৪৭ ইনিংসে বাংলাদেশের হয়ে দ্রুততম ২ হাজার রান করে রেকর্ড গড়েন। শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে মোস্তাফিজুর রহমান সুরাঙ্গা লাকমালের তৃতীয় শিকার হয়ে ব্যক্তিগত ৮ রানে ফেরেন।

আগের দিন ১৭৫ রানে অপরাজিত থাকা মুমিনুল হক দ্বিতীয় দিন নিজেকে অবশ্য ছাড়িয়ে যেতে পারেননি। রঙ্গনা হেরাথের বলে ১৭৬ রান করে মেন্ডিসকে ক্যাচ দেন। ২১৪ বলে ১৬টি চার ও এ ছক্কায় নিজের ইনিংস সাজান তিনি। মুমিনুলের আগের ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ রানের স্কোর ছিল ১৮১। ২০১৩ সালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে এ মাঠেই নিজের সর্বোচ্চ ইনিংসটি খেলেছিলেন।

মুমিনুলের পর হেরাথের দ্বিতীয় শিকার হয়ে ফেরেন মোসাদ্দেক হোসেন। ব্যক্তিগত ৮ রানে তুলে মারতে গিয়ে সান্দাকানের তালুবন্দী হন তিনি। দলীয় ৪১৭ ‍রানে রান আউটের শিকার হন মেহেদি হাসান মিরাজ। ১৯ বলে একটি চার ও একটি ছক্কায় ২০ রান করেন তিনি।

মাহমুদউল্লাহ ও সানজামুল ইসলাম মিলে অষ্টম উইকেট জুটিতে ৫০ রান যোগ করেন। ক্যারিয়ারের ১৫তম হাফসেঞ্চুরির দেখা পান মাহমুদউল্লাহ।