দক্ষিণ আফ্রিকা ও ইংল্যান্ডের মধ্যে প্রথম ওয়ান ডে বাতিল

0
278

স্বাগতিক দক্ষিণ আফ্রিকা ও ইংল্যান্ডের মধ্যকার ওয়ানডে সিরিজ আবারো বাধাগ্রস্ত হল। শুক্রবার দক্ষিণ আফ্রিকা দলে করোনার উপস্থিতি থাকায় সিরিজটি দুই দিন পেছানো হয়েছিল। এবার কোনো ক্রিকেটার নয়, কেপটাউনে হোটেল কর্মচারির শরীরে পাওয়া গেছে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি। তাই দ্বিতীয়বারের মত বাতিল করা হলো দক্ষিণ আফ্রিকা-ইংল্যান্ড সিরিজের প্রথম ওয়ানডে ম্যাচ।

প্রথমবার ম্যাচ শুরুর ঘণ্টাখানেক আগে জানা গেলো, দক্ষিণ আফ্রিকা দলের এক ক্রিকেটার করোনা পজিটিভ। যে কারণে শুক্রবার ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়নি। পরে সূচি পূণঃনির্ধারণ করা হয়, রোববার থেকে শুরু হবে ম্যাচ। তবে তার আগে শর্ত হলো, শুক্রবার সন্ধ্যায় স্যাম্পল জমা দেয়া পরীক্ষায় সবারই করোনা নেগেটিভ আসতে হবে।

শনিবার আসা রেজাল্টে দেখা গিয়েছিল, সবাই নেগেটিভ। এবার সিরিজ শুরু করা যাবে, এ চিন্তায় ছিল সবাই। সে সঙ্গে প্রস্তুতিও নিয়েছিল দুই দল। তবে, টস হওয়ার আধা ঘণ্টা আগে জানানো হয়েছে, টস হতে বিলম্ব হবে। ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলও অপেক্ষায় ছিল, শনিবার সন্ধ্যায় তারা কোভিড-১৯ টেস্টের জন্য যে স্যাম্পল জমা দিয়েছিল, তার রেজাল্ট আসার।

রেজাল্ট আসার পর দেখা গেলো, ইংল্যান্ড এবং দক্ষিণ আফ্রিকা দলের সব সদস্যের করোনা নেগেটিভ। তবে এই দুই যে হোটেলে অবস্থান করছিল, সেই ভিনেইয়ার্ড হোটেলের দুই কর্মচারির শরীরে বাসা বেধেছে করোনাভাইরাস। যে কারণে শর্ট নোটিশে দ্বিতীয়বারের মত সিরিজের উদ্বোধনী ম্যাচ স্থগিত রাখার ঘোষণা দেয়া হলো।

করোনার প্রভাবে পুরো সিরিজটা নিয়েই শঙ্কা দেখা দিয়েছে। কারণ ১০ ডিসেম্বর ইংল্যান্ড ক্রিকেট দলের একটি চাটার্ড ফ্লাইটে দেশে ফিরে যাওয়ার কথা রয়েছে।