ওয়ান প্ল্যানেট সামিটে অংশ নিতে প্যারিসের পথে প্রধানমন্ত্রী

0
71

তিন দিনের সরকারি সফরে ফ্রান্সের উদ্দেশ্যে ঢাকা ছেড়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সফরকালে তিনি দেশটির প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাক্রোর সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করবেন।

এ ছাড়া আগামী ১২ ডিসেম্বর মঙ্গলবার প্যারিসে অনুষ্ঠিত ওয়ান প্ল্যানেট সামিটে অংশ নিবেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী। ‘সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অভিযোজন ও জলবায়ু সহনশীলতা বিষয়ে বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনা সম্পর্কে সুনির্দিষ্ট প্রস্তাবনা দেবেন।

পাশাপাশি জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলা করে এসডিজি অর্জনের লক্ষ্যে বাংলাদেশ সরকারের গৃহীত নানা পদক্ষেপ ও সাফল্যের বিষয়টিও তুলে ধরবেন প্রধানমন্ত্রী। আগামী ১৪ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রীর দেশে ফেরার কথা রয়েছে।

প্যারিসে সফরের পথে সোমবার বিকেলে দুবাইয়ে পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

প্রধানমন্ত্রী এবং তার সফরসঙ্গীদের বহনকারী আমিরাত এয়ারলাইন্সের একটি বিমান স্থানীয় সময় দুপুর ১টা ২০ মিনিটে দুবাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

শেখ হাসিনা ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরন, জাতিসংঘ মহাসচিব এন্থোনিও গুতেরেস এবং বিশ্ব ব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়াং কিমের আমন্ত্রণে এই সফরে যাচ্ছেন। এর আগে প্রধানমন্ত্রী এবং তার সফরসঙ্গীরা সকাল ১০টা ২০ মিনিটে ঢাকায় হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করেন।

বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে বিদায় জানাতে সংসদ উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরী, অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত, শিল্পমন্ত্রী আমীর হোসেন আমু, সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা এইচ,টি ইমাম, জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ আ স ম ফিরোজ, তিন বাহিনীর প্রধানগণ কূটনৈতিক কোরের ডিন এবং উচ্চ পদস্থ বেসামরিক ও সামরিক কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সোমবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭টা ৩০ মিনিটে প্যারিসের চার্লস দ্যা গুলে আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরে পৌঁছার কথা রয়েছে। ফ্রান্সে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত কাজী ইমতিয়াজ হোসেন বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যর্থনা জানাবেন। বিমানবন্দরে আনুষ্ঠানিকতা শেষে প্রধানমন্ত্রীকে মোটর শোভাযাত্রাসহকারে ইন্টারন্যাশনাল প্যারিস লি গ্রান্ডে (অপেরা) নিয়ে যাওয়া হবে। প্যারিস সফরকালে প্রধানমন্ত্রী এই হোটেলেই অবস্থান করবেন।

আগামীকাল মঙ্গলবার রাজধানী প্যারিসের পশ্চিমাঞ্চীয় উপকন্ঠে লী সেনগুইন দ্বীপে একটি মিউজিক ও আর্ট সেন্টারে এই সম্মেলন শুরু হবে। এতে বেসরকারি সাহায্য সংস্থা, ফাউন্ডেশন, এবং সরকারি বেসরকারি পর্যায়ের দু’শতাধিক প্রতিনিধি যোগ দিবেন। এদের মধ্যে শতাধিক বিশ্ব নেতা থাকবেন। জলবায়ু পরিবর্তন জনিত কারণে সৃষ্ট চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় অভিন্ন কৌশল নির্ধারণের লক্ষ্যে এই সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী আগামীকাল সন্ধ্যায় লা সাইন মিউজিকেলে প্লানেট শীর্ষ সম্মেলনের উচ্চ পযার্য়ের একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিবেন।

সম্মেলনে যোগদানের পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী একই দিন সকালে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমান্যুয়েল বাসভবন এলিসি প্রাসাদে ম্যাকরনের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠক করবেন।প্রধানমন্ত্রী সম্মেলন থেকে ফেরার পর একটি সামাজিক অনুষ্ঠানে যোগ দিবেন।

তিনি পরে রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানদের সম্মানে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের দেয়া এলিসি প্রাসাদে মধ্যাহ্ন ভোজ সভায় যোগ দিবেন।