রাকিব হাসান:

বন্যা, সিডর ও আইলার মতো প্রকৃতিক দুর্যোগের হাত থেকে খাদ্যশস্য ও বীজ নিরাপদে সংরক্ষণের লক্ষ্যে পারিবারিক সাইলো বিতরণ করছে সরকার।

নামমাত্র মূল্যে দুর্যোগপ্রবণ এলাকার ৫ লক্ষাধিক পরিবারের মাঝে এই সাইলো বিতরণ করা হচ্ছে। সরকারের এই ধরনের উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

ভৌগলিক অবস্থানের কারণে প্রাকৃতিক দুর্যোগ বাংলাদেশের নিত্য সঙ্গী। ঘূর্ণিঝড়, জলোচ্ছাস কিংবা বন্যায় প্রায়ই ক্ষতিগ্রস্ত হয় দেশের নিম্বাঞ্চল।

প্রাকৃতিক দুর্যোগ মোকাবেলা করার পাশাপাশি খাদ্যশস্যের পর্যাপ্ত ও নিরাপদ সংরক্ষণের লক্ষ্যে দেশের অনগ্রসর এবং দুর্যোগ কবলিত এলাকায় হ্রাসকৃত মূল্যে পারিবারিক সাইলো বিতরণ কার্যক্রম হাতে নিয়েছে সরকার।

ফুডগ্রেড প্লাষ্টিকের তৈরি প্রতিটি পারিবারিক সাইলোর ধারণ ক্ষমতা ৭০ লিটার। বিজ্ঞানভিত্তিক নকশা অনুযায়ী তৈরি হওয়ায় এতে সংরক্ষিত ধান, চাল বা অন্যান্য দ্রব্যাদির গুণগতমান দীর্ঘদিন যাবৎ অক্ষূন্ন থাকে বলে দাবী কর্তৃপক্ষের।

প্রাথমিক পর্যায়ে দেশের দুর্যোগপ্রবণ ১৯টি জেলার ৬৩টি উপজেলায় এই পারিবারিক সাইলো বিতরণ করা হচ্ছে বলে জানান খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম।

দুর্যোগ পরবর্তী খাদ্য সংকট মোকাবেলার পাশাপাশি বীজের সহজ প্রাপ্তির মাধ্যমে উৎপাদন অব্যাহত রাখাই এর লক্ষ্য বলে জানান তিনি।

এদিকে, সরকারের এই ধরনের উদ্যোগকে অত্যন্ত যুগোযোপী বলে মনে করছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের দুর্যোগ বিজ্ঞান এবং ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক দেওয়াম মোহাম্মদ এনামুল হক। দুর্যোগ মোকাবেলায় বিশ্বের অন্যান্য দেশের মত বাংলাদেশও এখন অনেকটাই সক্ষম বলে দাবী তার।