নারায়ণগঞ্জের মসজিদে বিস্ফোরণে গ্যাস লিকেজের প্রমাণ মিলেছে: সিআইডি’র তদন্তদল

0
295

নারায়ণগঞ্জের পশ্চিম তল্লায় বাইতুস সালাত জামে মসজিদে গ্যাস লিকেজের বিষয়টি প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হয়েছে বলে জানিয়েছে সিআইডি’র তদন্তদল।

মসজিদটিতে বিস্ফোরণের ঘটনায় দায়ের করা মামলার তদন্তের দায়িত্ব পেয়ে দ্বিতীয় দিনের মতো শ‌নিবার দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সিআইডি’র তদন্তদল। প‌রিদর্শন শেষে সাংবা‌দিকদের সঙ্গে কথা বলেন সিআইডির ডিআইজি মাইনুল হাসান।

পরিদর্শন শেষে ডিআইজি মাঈনুল হাসান সাংবাদিকদের বলেন, ‘যে ঘটনাটি ঘটেছে, তা অত্যন্ত মর্মান্তিক। এ ঘটনায় ৩১ জনের প্রাণহানি ঘটেছে। এ ঘটনায় ফতুল্লা মডেল থানায় পুলিশ মামলা করেছে। মামলাটি তদন্তের জন্য সিআইডির ওপর দায়িত্ব পড়েছে। আমরা সর্বোচ্চ পেশাদারি ও দক্ষতা দিয়ে মামলাটির তদন্তকাজ দ্রুত শেষ করব। সাক্ষ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে যাদের দোষ পাওয়া যাবে, তাদের প্রত্যেককে অভিযুক্ত করে আদালতে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।’

মাইনুল হাসান বলেন, প্রাথমিকভাবে গ্যাস লিকেজের বিষয়টি প্রমাণিত হয়েছে। তবে ফায়ার, তিতাস, ডিপিডিসিসহ তদন্ত কমিটির সব বিষয় নিয়ে কাজ করা হবে। তদন্তে যারা দোষী প্রমাণিত হবেন তাঁদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এ সময় ডিআইজির সঙ্গে ছিলেন সিআইডির অতিরিক্ত ডিআইজি ইমাম হোসেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) টিএম মোশাররফ হোসেনসহ পুলিশ ও সিআইডির কর্মকর্তারা।

উল্লেখ্য, গত ৪ সেপ্টেম্বর রাতে পশ্চিম তল্লার বায়তুস সালাত জামে মসজিদে বিস্ফোরণ ঘটে। এ ঘটনায় দগ্ধ ৩৭ জনকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হলে ৩১ জন মারা যান। গুরুতর দগ্ধ অবস্থায় এখনও ৫ জন চিকিৎসাধীন আছেন। বিস্ফোরণ ঘটনার একদিন পর ফতুল্লা থানায় একটি মামলা হয়। গত বৃহস্পতিবার মামলাটি সিআইডির কাছে হস্তান্তর করা হয়। এ ঘটনায় ফায়ার সার্ভিস, জেলা প্রশাসন, তিতাস গ্যাস, ডিপিডিসি ও সিটি করপোরেশন পৃথক পাঁচটি তদন্ত কমিটিও গঠন করা হয়েছে।