নিবন্ধন হয়েছে প্রায় ৯ লাখ রোহিঙ্গা

0
79

মিয়ানমার থেকে নির্যাতনের মুখে বিভিন্ন সময়ে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের মধ্যে আট লাখ ৯০ হাজারের নিবন্ধন শেষ করেছে ইমিগ্রেশন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তর। কক্সবাজারে রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলোতে নিবন্ধনের কাজে থাকা রাষ্ট্রীয় এই সংস্থার মহাপরিচালক মেজর জেনারেল মো. মাসুদ রেজওয়ান  বৃহস্পতিবার এ তথ্য জানিয়েছেন।

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এই আট লাখ ৯০ হাজার নিবন্ধিত রোহিঙ্গার মধ্যে বেশিরভাগই এসেছেন গত ২৫ অগাস্ট রাখাইনে সেনা অভিযান শুরুর পর।

কক্সবাজারে রোহিঙ্গাদের ত্রাণ কর্মসূচিতে জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর সমন্বয়ের দায়িত্বে থাকা ইন্টার সেক্টর কোঅর্ডিনেশন গ্রুপের ওয়েবসাইটে বৃহস্পতিবার প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, রাখাইনে দমন অভিযান শুরুর পর এ পর্যন্ত বাংলাদেশে আসা রোহিঙ্গার সংখ্যা ছয় লাখ ৫৫ হাজার।

নতুন আসা এই রোহিঙ্গাদের মধ্যে পাঁচ লাখ ৪৭ হাজার মানুষকে রাখা হয়েছে কক্সবাজারের কুতুপালং ও বালুখালি ক্যাম্পে।

 

মিয়ানমার বরাবরই বলে আসছে, এই রোহিঙ্গারা যে সত্যিই রাখাইন থেকে এসেছে, তা যাচাই বাছাই করে নিশ্চিত হওয়ার পরই তাদের ফিরিয়ে নেওয়া হবে।

এ কারণে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের তালিকা তৈরি করতে এবং শরণার্থী শিবিরের ব্যবস্থাপনার সুবিধার জন্য গত ১২ সেপ্টেম্বর বায়োমেট্রিক নিবন্ধন ও পরিচয়পত্র দেওয়ার কাজ শুরু হয়। সেনাবাহিনী ও বিজিবির সহায়তায় পাসপোর্ট অধিদপ্তর এই নিবন্ধন কাজ করছে।

সেনাবাহিনীর প্রায় একশজন, বিজিবির ৮০ জন অপরেটর এই নিবন্ধন কাজে রয়েছেন জানিয়ে মহাপরিচালক বলেন, পাসপোর্ট অধিদপ্তরের ২০ জন কর্মকর্তা-কর্মচারীও এ কাজে সহযোগিতা করছেন।