আবু সাঈদ অপু :

প্রতিনিয়ত চাঁদাবাজীর শিকার হতে হচ্ছে নিম্ন আয়ের মানুষজনকে। ৫ টাকা থেকে শুরু করে ৫০ টাকা পর্যন্ত গুনতে হচ্ছে তাদের। এমনকি টাকা না দেয়ার ফলে অনেকে শারিরিকভাবে লাঞ্চিত হতে হয়। ফলে কর্মব্যস্ত আর ভাগ্য উন্নয়নের এই নগরী বলে খ্যাত এই রাজধানী সর্ম্পকে বিরক্তিকর অভিজ্ঞতা নিয়ে অনেকে ফিরে যান আপন নীড়ে।

সেই চিত্রই এবার তুলে ধরা হয়েছে অনুসন্ধানী প্রতিবেদন ‘ঘটনার অন্তরালে’।

যানজট নিরসনের দায়িত্বে থাকা কর্তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগের এমন সত্যতা উন্মোচনে মাঠে নামে ঘটনার অন্তরালে টিম। বাস্তবতা অনুসন্ধানে টাকা নেয়ার চিত্র ধারণ করতে খুব একটা সময়ের প্রয়োজন হয়নি। মাত্র কয়েক মিনিটে মিলে যায় ভুক্তভোগীদের অভিযোগের সত্যতা।

দেখা যায় শিশু হাসপাতালের সামনে যানজট নিরসনের দায়িত্বে থাকা কর্তব্যরত সদস্যরা অসহায় নিম্ন আয়ের মানুষের কাছ থেকে হাতিয়ে নিচ্ছেন টাকা। ঘটনার আরও গভীরে যেতে আমাদের যেতে হয় রাজধানীর বিভিন্ন পয়েন্টে। সেখানেও মিলে গেল একই চিত্র।

অভিযোগের পাল্লাটা অনেক ভারী হলেও রোজগার বন্ধ হওয়ার ভয়ে অনেকে কথাই বলতে চান না।

নিম্ন আয়ের মানুষজনকে জিম্মি করে এভাবে উপার্জন করা সামাজিকভাবে নিচু মানসিকতার পরিচয় বলে মন্তব্য করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান।

এই বিষয়ে উপ-পুলিশ কমিশনার বলেন, নগরীর মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিতে বদ্ধ পরিকর আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।  নিম্ন আয়ের মানুষের কাছ থেকে টাকা নেয়ার অভিযোগ পেলেই কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।