নেত্রকোনায় প্রধান শিক্ষক অর্জুন হত্যার অভিযোগে একজনের মৃত্যুদণ্ড

0
83

নেত্রকোনার বারহাট্টায় উপজেলার মনাষ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক অর্জুন বিশ্বাসকে কুপিয়ে হত্যার দায়ে কালা চাঁন নামে এক ব্যক্তিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত।

বৃহস্পতিবার দুপুরে আসামির উপস্তিতিতে আদালতে জেলা ও দায়রা জজ কে এম রাশেদুজ্জামান রাজা এ রায় প্রদান করেন। এসময় একই মামলার অপর তিন আসামি এমদাদুল হক হীরা, জেড এ ফুয়াদ খান ও শহীদুল হক ভাসানীকে বেকসুর খালাস প্রদান করা হয়।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, ঘটনার কয়েকমাস পূর্ব থেকে মনাস সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির পদ নিয়ে প্রধান শিক্ষকের সাথে স্কুল কমিটির সদস্য ফুয়াদ খান বাবুল ও স্থানীয় ইউপি মেম্বার কাশেমের ভাই কালাচানের সাথে বিবাদ ঘটে। এর জের ধরে স্কুলের মেরামত কাজের টাকা নিয়ে কালাচাঁন শিক্ষককে হুমকি প্রদান করেন।

এরপর প্রতিদিনের মতো ২০১৫ সনের ২ ডিসেম্বর মোটর সাইকেল যোগে স্কুলে রওয়ানা দেন প্রধান শিক্ষক অর্জুন বিশ্বাস। এসময় মোটরসাইকেলে সাথে ছিলেন স্কুল শিক্ষিকা সাফিয়া সুলতানা। স্কুলের অদূরেই ওৎ পেতে থাকা কালাচান তার সঙ্গীদের নিয়ে চলতি অবস্থায় হাতে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপ দিলে দুজনেই পড়ে যায়। সাফিয়া সুলতানা উঠে চলে যেতে সক্ষম হলেও প্রদান শিক্ষক উঠতে পারেন নি। তাকে এলোপাথারি কুপিয়ে যখম করে। খবর পেয়ে স্কুলের শিক্ষক ও অন্যরা দ্রুত বারহাট্টা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

পরদিন নিহতের স্ত্রী মায়া রানী সরকার বাদী হয়ে কালাচান সহ ৪ জনকে আসামি করে বারহাট্টা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ২০১৬ সালের ৩১ জানুয়ারি পুলিশ আদালতে চূড়ান্ত চার্জশীট দাখিল করে। ১৬ জন স্বাক্ষীর স্বাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আদালত এ রায় দেন।