ইতিহাস বিকৃতি করায়, পাকিস্তানের হাইকমিশনারকে সতর্ক করলো ঢাকা

0
89

বাংলাদেশের ইতিহাস বিকৃতি করায় পাকিস্তানের হাই কমিশনারকে ডেকে প্রতিবাদ জানিয়েছে ঢাকা।পকিস্তানের এ ধরনের কাজ দুই দেশের সম্পর্ককে ক্ষতিগ্রস্ত করবে বলে সতর্ক করা হয়েছে।

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কিস্তান অ্যাফেয়ার্স নামে একটি ফেইসবুক পেইজ থেকে ১৩ মিনিট ৪৫ সেকেন্ডের একটি ভিডিও পোস্ট করা হয়, যেখানে বলা হয়, ‘শেখ মুজিবুর রহমান নন, জিয়াউর রহমান বাংলাদেশের স্বাধীনতার ঘোষক। আর বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর তাজউদ্দীন আহমেদ এ ব্যাপারে তখনকার মেজর জিয়াকে সমর্থন দেন।’

ঢাকায় পাকিস্তান হাইকমিশন গত বৃহস্পতিবার তাদের ফেইসবুক পেইজে ওই ভিডিও শেয়ার করলে বাংলাদেশের বিভিন্ন সংবাদপত্রে খবর আসে।

পরে এ নিয়ে আলোচনা শুরু হলে হাই কমিশনের ফেইসবুক পেইজ থেকে ভিডিওটি সরিয়ে ফেলা হয়।

ওই ভিডিওকে কেন্দ্রে করে ঢাকায় পাকিস্তানের হাই কমিশনার রফিউজ্জামান সিদ্দিকীকে মঙ্গলবার বিকালে তলব করে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। রফিউজ্জামান সে অনুযায়ী বিকাল ৩টায় মন্ত্রণালয়ে এলেও আধা ঘণ্টা তাকে অ্যাম্বাসেডরস লাউঞ্জে বসিয়ে রাখা হয়।

পরে পররাষ্ট্র সচিব (বাইলেটারাল ও কনস্যুলার) কামরুল আহসান তাকে ডেকে নিয়ে ৫০ মিনিট কথা বলেন এবং বাংলাদেশের পক্ষ থেকে একটি প্রতিবাদলিপি ধরিয়ে দেন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে বেরিয়ে যাওয়ার সময় সাংবাদিকদের কোন প্রশ্নের উত্তর দেননি হাই কমিশনার রফিউজ্জামান। তবে সচিব কামরুল আহসান জানান, বাংলাদেশ ইতিহাস বিকৃতির ওই চেষ্টার প্রতিবাদ জানিয়েছে এবং পাকিস্তানকে সতর্ক করে দিয়েছে।

“হাই কমিশনারকে বলা হয়েছে, এ রকম চললে দুই দেশের সম্পর্ক ক্ষতিগ্রস্ত হবে। ইতিহাস ইতিহাসই। অপপ্রচার করে ইতিহাসকে ভিন্ন পথে নেওয়া যাবে না। সচিব জানান, পাকিস্তানের হাই কমিশনার দুঃখ প্রকাশ করে বলেছেন, এ ঘটনা ‘অনিচ্ছাকৃত’ এবং তারা বিষয়টি ‘বুঝে উঠতে পারেননি’। পরে তারা ভিডিওটি তাদের ফেইসবুক পেইজ থেকে সরিয়ে ফেলেছেন।