পাল্টে গেছে দেশের রাজনৈতিক দৃশ্যপট (ভিডিও)

0
220

মানিক লাল ঘোষ:

সকল জল্পনা আর কল্পনার অবসান ঘটিয়ে বিএনপির নির্বাচিত চার সদস্যের সংসদে যোগদানকে কেন্দ্র করে পাল্টে গেছে দেশের রাজনৈতিক দৃশ্যপট।

সংসদীয় গনতান্ত্রিক রাজনীতিতে বিএনপির অংশগ্রহনকে স্বাগত জানিয়েছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

কিন্তুু নির্ধারিত সময়ে বিএনপির মহাসচিব মীর্জা ফকরুল ইসলাম আলমগীর শপথ গ্রহন না করায় তার আসন শুন্য হওয়ায় নতুন করে  রাজনৈতিক সংকটে পড়তে পারে বিএনপি এমন   মত বিভিন্নদলের নেতাদের।

৩০ এপ্রিল ছিল জাতীয় রাজনীতির টানিং পয়েন্ট। ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হওয়া জাতীয় নির্বাচনের পর একাদশ জাতীয় সংসদের যাত্রা শুরু ৩০ জানুয়ারি। ৯০ দিনের মধ্যে শপথ না নিলে আসন শুন্য ঘোষনা এমন ভাবনায় ২৯ এপ্রিল শপথ নিলেন বিএনপির চার নির্বাচিত সদস্য।

বর্তমান সংসদে ঐক্যফ্রন্ট থেকে নির্বাচিত হন মোট আট জন। এর মধ্যে গনফোরামের সুলতান মোহাম্মদ মনসুর ৭ মার্চ, মোকাব্বির খান ২ রা এপ্রিল আর বিএনপির জাহিদুর রহমান জাহিদ শপথ নেন ২৪ এপ্রিল।

বাকী থাকে বিএনপির পাচজন। সংসদে যোগদান নয় রাজপথে আন্দোলন করে খালেদা জিয়ার মুক্তি এমন অবস্থানে অনড় ছিল বিএনপি।

নির্ধারিত ৯০ দিন পার না হতেই লন্ডনে অবস্থানরত দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের নির্দেশে সংসদ সদস্য হিবে শপথ গ্রহন করেন বিএনপির হারুনুর রশিদ, আমিনুল ইসলাম,আব্দুস সাত্তার ভুইয়া ও মোশাররফ হোসেন।

এদিকে নির্ধারিত সময়ের মধ্যে শপথ গ্রহন না করায় বিএনপির মহাসচিব মীর্জা ফকরুল ইসলাম আলমগীরের বগুরা ৬ আসন শুন্য ঘোষণা করেন জাতীয় সংসদের স্পিকার। এ নিয়ে বিএনপির মধ্যে শুরু হয়েছে নতুন ভাবনা।

আওয়ামী লীগ মনে করছে এর ফলে আবারো রাজনৈতিক সংকটে পড়বে বিএনপি।
একাদশ জাতীয় সংসদে মাত্র ৭ জন সদস্য নিয়ে কতটা ভুমিকা পালন করতে পারে বিএনপি ও ঐক্যফ্রন্ট সে দিকেই তাকিয়ে আছে জনগণ।