প্রথম বারের মতো ক্রিন শেয়ারে ডি’ক্যাপ্রিও-ব্র্যাড পিট

0
67

তাঁদের দু’জনের মধ্যে কে বেশি হ্যান্ডসাম, তা নিয়ে বিতর্ক চলতেই পারে। কার অভিনয় বেশি ভাল লাগে, এরও বোধহয় কোনও সঠিক উত্তর হয় না। সেই লিওনার্দো  ডি’ক্যাপ্রিও ও ব্র্যাড পিট প্রথম বার এক সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করতে চলেছেন।

একেই বোধহয় বলে ‘ওয়ান্স আপন অ্যা টাইম ইন হলিউড’। হ্যাঁ, ছবির নামও তাই। পরিচালক ‘পাল্প ফিকশন’ খ্যাত কোয়েন্টিন টারানটিনো।

জানা যায়, হিপি হলিউডকেই তুলে ধরবে এই ছবি। প্রেক্ষাপট ১৯৬৯ সালের লস অ্যাঞ্জেলস। ফিল্মটি আদতে ক্রাইম থ্রিলার। এই রকম একটা সিনেমার ফার্স্ট লুকের জন্য দর্শকরা যে বহুদিন অপেক্ষা করবেন, সেটাই স্বাভাবিক।

আর সেই ছবিতে যদি লিওনার্দো ডি’ক্যাপ্রিও ও ব্র্যাড পিটের মতো দুই তারকা থাকেন, সেই ছবির জন্য অপেক্ষাটা আরও বেড়ে যায়। অবশেষে অপেক্ষার অবসান। প্রকাশ্যে এল ‘ওয়ান্স আপন আ টাইম ইন হলিউড’-এর ফার্স্ট লুক।

ইনস্টাগ্রাম অ্যাকউন্ট থেকে সিনেমায় ব্র্যাড ও নিজের এই লুকস শেয়ার করলেন লিও নিজেই। লিওনার্দো ডি’ ক্যাপ্রিও এবং পরিচালক কোয়েন্টিন টারানটিনো। ছবিটি শাটারস্টক থেকে নেওয়া।

লিও কিংবা ব্র্যাডের দিক থেকে এমনিতেই চোখ ফেরাতে পারেন না নারী অনুরাগীরা। এবার ষাটের দশকের লুকসে তাঁদের কেমন দেখাচ্ছে, তা দেখতে ইনস্টাগ্রামেই ভিড় জমাচ্ছেন সিনেপ্রেমীরা।

ডেনিম অন কস্টিউমে কাকে বেশি ভাল লাগছে? কে একটু বেশি হ্যান্ডসাম হাঙ্ক আপনারাই বলুন তো। টাইটানিকের জ্যাক নাকি ‘দ্য কিউরিয়াস কেস অফ বেঞ্জামিন বাটন’-এর তারকা?

অ্যাঞ্জেলিনার সঙ্গে বিচ্ছেদের পর থেকেই মন ভাল নেই ব্র্যাডের, গুঞ্জন এটাই। এই ছবিতে তাই মনপ্রাণ উজাড় করে দিচ্ছেন ব্র্যাড। আর টারানটিনো বলেছিলেন, ‘পাল্প ফিকশন’, ‘ইনগ্লোরিয়াস বাস্টার্ড’ সবমিলে মোট দশটি ছবিই তিনি বানাবেন।

দশ নম্বর সিনেমাটিই হবে তাঁর শেষ ছবি। তা যদি হয়, ‘ওয়ান্স আপন আ টাইম ইন হলিউড’ দিয়েই টারানটিনো তাঁর হলিউড সফর শেষ করতে চলেছেন, আর সেই ছবিতেই থাকছেন, প্রথম বার এক সঙ্গে, লিওনার্দো ডি’ ক্যাপ্রিও এবং ব্র্যাড পিট।