প্রধানমন্ত্রীর ক্ষমতা ব্যবহার করে এতিমখানার টাকা আত্মসাৎ করিনি: খালেদা জিয়া

0
52

প্রধানমন্ত্রীর ক্ষমতা ব্যবহার করে এতিমখানার টাকা আত্মসাৎ করিনি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া বলেছেন।

বৃহস্পতিবার পুরান ঢাকার বকশীবাজারের বিশেষ আদালতে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় আত্মপক্ষ সমর্থন করে দেয়া বক্তব্যে এ দাবি করেন তিনি।

এ মামলায় ষষ্ঠ দিনের মতো বক্তব্য উপস্থাপন করছেন বিএনপি নেত্রী। এদিন জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায়ও আদালতে হাজিরা দেবেন। বৃহস্পতিবার বেলা ১১টা ২৫ মিনিটে আদালতে পৌঁছান খালেদা জিয়া।

এর আগে বেলা পৌনে ১১টার দিকে সাবেক প্রধানমন্ত্রী তার গুলশানের বাসা থেকে আদালতের পথে বের হন বলে জানান খালেদা জিয়ার আইনজীবী সানাউল্লাহ মিয়া।

আদালত সূত্র জানায়, দুর্নীতির এ দুই মামলায় চলতি বছরের ১২ অক্টোবর খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করেছিলেন আদালত।

১৯ অক্টোবর এ দুই মামলায় তার জামিন মঞ্জুর করেন আদালত। ওই দিন তিনি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় আত্মপক্ষ সমর্থনে নিজের বক্তব্য উপস্থাপন শুরু করেন। এ পর্যন্ত পাঁচ দফা বক্তব্য দিয়েছেন তিনি।

এদিকে বিএনিপ নেত্রী জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় গত বছরের ১ ডিসেম্বর আত্মপক্ষ সমর্থনে তিনি নিজের বক্তব্য উপস্থাপন শুরু করেন। এ মামলায় তিনি দ্বিতীয় দিনের মতো বক্তব্য উপস্থাপন করবেন।

উল্লেখ্য, জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে ৩ কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা লেনদেনের অভিযোগে ২০১০ সালের ৮ আগস্ট রাজধানীর তেজগাঁও থানায় একটি মামলা করে দুদক।

আর জিয়া অরফানেজ ট্রাস্টের নামে এতিমদের জন্য বিদেশ থেকে আসা ২ কোটি ১০ লাখ ৭১ হাজার ৬৭১ টাকা আত্মসাতের অভিযোগে ২০০৮ সালের ৩ জুলাই রাজধানীর রমনা থানায় অপর মামলাটি করা হয়।