আবু সাঈদ অপু : প্রযুক্তি সবার জন্যই অপরিহার্য। অনলাইন সুযোগ-সুবিধা সাধারণের জীবনে এনেছে বৈপ্লবিক পরিবর্তন। তবে, অনলাইন প্রযুক্তিকে অপব্যবহার করে কোন কোন চক্র হাতিয়ে নিচ্ছে লাখ-লাখ টাকা। ফেসবুক, টুইটার কিংবা মোবাইল ফোনের মাধ্যমে অনৈতিক সর্ম্পক স্থাপনের মন ভোলানো প্রলোভন দেখিয়ে সর্বশ্বাস্ত করছে তরুণদের। দর্শক, সেই ঘটনাই তুলে ধরার চেষ্টা করা হয়েছে ঘটনার অন্তরালে।

এমন অভিযোগের সত্যতা উন্মোচনে মাঠে নামে ঘটনার অন্তরালে টিম। অনলাইনে অসংখ্য নারী ঘরে বসেই নাকি লাখ-লাখ টাকা আয় করছেন ? সত্যিই কি তাই। এমন প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে ঘটনার অন্তরালে টিম শুরু করে অনুসন্ধান।

বিভিন্ন দেশীয় ওয়েব সাইটে আর্কষনীয় অঙ্গভঙ্গির ছবি প্রদর্শন করে অর্থের বিনিময়ে শারীরিক সর্ম্পক স্থাপনের আহবান করা হচ্ছে। আর এজন্য ওয়েব সাইটে দেয়া হয়েছে অসংখ্য মোবাইল ফোন নম্বর। এর সঙ্গে জুড়ে দেয়া আছে নানা শর্তাবলীও।

এর একটি নম্বর সংগ্রহ করে কথা হয় লোকচক্ষুর অন্তরালে থাকা এক নারীর সাথে। সেই কথপোকথনে জানা যায়, অবৈধ ব্যবসার অনেক গোপন তথ্য। এই মেয়ের মতো অনেকেই যুক্ত এ ধরনের চক্রের সঙ্গে । কথা বলে তাদের কয়েকজনও।

অনলাইন দুনিয়ার বাঁকে বাঁকে লুকিয়ে থাকা প্রতারণার এইসব জাল ভেদ করার উপায় সম্পর্কে নানান মত দিয়েছেন অনেকেই।