বঙ্গবন্ধুর স্মৃতি বিজড়িত ৩২ এ ছুটছে তরুণ প্রজন্ম

0
193

নাহিদ কামাল : বাংলাদেশ সৃষ্টির মহানায়ক জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান থাকতেন ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে। ১৯৬১ সালের ১ অক্টোবর থেকে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত ছিলেন এই বাড়িতেই। আর ১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্ট বঙ্গবন্ধুসহ পরিবারের সদস্যদের এখানেই হত্যা করে ষড়যন্ত্রকারীরা।

বাঙ্গালীর স্বাধিকার আন্দোলনের স্মৃতি বিজড়িত এই বাড়িটি পরিদর্শনে প্রতিদিনই ছুটে আসেন নানা বয়সের হাজারো মানুষ।

ধানমন্ডি ৩২ নম্বর, বঙ্গবন্ধুর প্রায় দেড় দশকের স্মৃতি জড়িয়ে আছে এই বাড়িকে ঘিরে। শুধু বঙ্গবন্ধু নয়, বাঙ্গালীর স্বাধিকার আন্দোলনের কেন্দ্রবিন্দুও ছিল এই বাড়ি। এখানেই বঙ্গবন্ধু থাকতেন স্বপরিবারে। ঘাতকরা এই বাড়িতেই পরিবারের সদস্যসহ হত্যা করে বঙ্গবন্ধুকে, বাড়িকে করে রক্তাক্ত, ক্ষত বিক্ষত করে বাঙ্গালীর হৃদয়। ঘাতকদের হাত থেকে রক্ষা পায়নি ছোট্ট শিশু রাসেলও।

বঙ্গবন্ধুর স্মৃতির মাইল ফলক হিসেবে এই বাড়িটি এখন বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর। প্রতিদিনই এই জাদুঘরে শ্রদ্ধা জানাতে আসেন নানা বয়সের হাজারো মানুষ। বিশেষ করে ছুটির দিনে মানুষের ঢল নামে।

হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ এই মানুষটিকে চেনাতে অনেকেই আসেন পরিবারের ছোট সদস্যদের নিয়ে। ধানমন্ডি ৩২ নম্বরের শোকগাঁথা এই বাড়িটিকে ১৯৯৪ সালে জাতীয় শোক দিবসের অনুষ্ঠান থেকে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরে রূপান্তর করেন বঙ্গবন্ধু কন্যা বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।