বাংলাদেশের অবিস্মরণীয় জয়

0
67

ত্রিদেশীয় টি-টোয়েন্টি সিরিজে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কাকে পাঁচ উইকেটে উড়িয়ে দিয়ে ইতিহাস গড়েছে টাইগাররা। ক্রমাগত পরাজয়ে দেয়ালে পিঠ ঠেকতে থাকা দলের জন্য এই জয় মস্ত এক প্রশান্তি।

শ্রীলঙ্কার মাটিতে তাদেরই হারিয়ে ফিরে পাওয়া গেল হারিয়ে যাওয়া সে জয় নামক প্রশান্তি। এমন নয় যে, লঙ্কানদের ঘরের মাঠে এই প্রথম হারানো। তবে শনিবারের জয়টি ছিলো অবিস্মরনীয়।

২১৫ রানের টার্গেটে নেমে দুর্দান্ত সূচনা করেছিল বাংলাদেশ। তামিম ইকবাল ও লিটন দাসের ব্যাটে খুব সহজেই বিশাল লক্ষ্য পাড়ি দেওয়ার আভাস পাওয়া যাচ্ছিল। শেষ পর্যন্ত ৫ উইকেট হারিয়ে জয়ের লক্ষে পৌঁছে যায় বাংলাদেশ। এটিই বাংলাদেশের সবচেয়ে বেশি রান টপকিয়ে জয়।

কলম্বোর আর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে শনিবার ৫ উইকেটে করা ২১৫ রান টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ। আগের সেরা ছিল ১৯৩। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষেই গত ফেব্রুয়ারিতে মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে প্রথম ইনিংসে সেই রান করে হেরেছিল তারা।

প্রথমবারের মতো দুইশ রান করা বাংলাদেশ স্বাভাবিকভাবেই প্রথমবারের মতো জিতল দুইশ ছাড়ানো রান তাড়া করে। টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রান তাড়া করে জয়ের রেকর্ড ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজর বিপক্ষে। ২০০৭ সালে জোহানেসবার্গে ১৬৪ রান তাড়া করে জিতেছিল বাংলাদেশ।

আর প্রেমাদাসা স্টেডিয়ামে টি-টোয়েন্টিতে সর্বোচ্চ রান তাড়ার রেকর্ড ছিল শ্রীলঙ্কার অধিকারে। ত্রিদেশীয় সিরিজের উদ্বোধনী ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে ১৭৫ রানের লক্ষ্য তাড়া করে সেই রেকর্ড গড়েছিল স্বাগতিকরা। এক ম্যাচ পর রেকর্ডটি নিজেদের করে নিল বাংলাদেশ।

টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের চেয়ে বেশি রানের লক্ষ্য তাড়া করে জিতেছে কেবল অস্ট্রেলিয়া, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও ইংল্যান্ড। ২১৫ রানের লক্ষ্য তাড়া করে জিতে বাংলাদেশ বসেছে তালিকার চতুর্থ স্থানে।