বিমানে শ্লীলতাহানির শিকার ‘দঙ্গল-কন্যা’ জাইরা

0
72

‘দঙ্গল-কন্যা’ জাইরাকে চলচ্চিত্রে দেখা গেছে বড় বড় ছেলেকে পর্যন্ত কুস্তির ময়দানে ধরাশায়ী করেছেন।  দেখা যায়। কিন্তু বাস্তবে সেই অভিনেত্রীই শনিবার বিমানে শ্লীলতাহানির শিকার হন।

কিশোরী এই তারকা ভিস্তারা এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইটে দিল্লি থেকে মুম্বাই যাচ্ছিলেন। বিমানের লাইট অফ করে দিলে তার পাশের যাত্র বিভিন্ন কৌশলে তার গায়ে হাত দিতে থাকেন।

নিজের অভিজ্ঞতার কথা জানিয়ে ভিডিও প্রকাশ করেন জাইরা। ভিডিওতে সেই ভয়ংকর অভিজ্ঞতার কথা বলতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন তিনি।

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পাওয়া ১৭ বছর বয়সী শিল্পী জাইরা ইনস্টাগ্রামে ভিডিও প্রকাশ করে লিখেছেন, ‘আমি দিল্লি থেকে মুম্বাই যাচ্ছিলাম। পাশে বসা মধ্যবয়স্ক এক যাত্রী আমার সেই দুই ঘণ্টার যাত্রাকে অসহনীয় করে তোলে। আমি তার কাণ্ড ভিডিওতে রেকর্ড করে রাখতে চেয়েছিলাম, কিন্তু ফ্লাইটের অভ্যন্তরে আলো কম থাকায় পরিষ্কার ফুটেজ পাইনি।’

জাইয়া ওয়াসিম বলেন, ‘রাতে ফ্লাইটের ভেতর আলো কম থাকার কারণে লোকটি আমাকে আরও বেশি বিরক্ত করার সুযোগ পায়। সে প্রায় ৫ থেকে ১০ মিনিট ধরে আমার ঘাড়ে হাত দিতে থাকে। খারাপ উদ্দেশ্য নিয়ে লোকটি বারবার তার পা আমার গা ঘেঁষে ওপর নিচ করে। কেবিন ক্রুর কাছে অভিযোগ করেছি, কিন্তু তাঁরা আমার সাহায্যে এগিয়ে আসেননি। কেবিন ক্রুদের বলেছি, আপনারা এভাবেই নারী যাত্রীদের সেবা দেন?’

জানা যায়, জাইরা খুব চেষ্টার পর তাঁর বাহুতে হাত রাখা অবস্থায় সেই লোকের একটি ছবি তুলতে সক্ষম হন। এদিকে বিষয়টি ভারতের জাতীয় নারী কমিশন অবগত হওয়ার পর তারা এই বিষয়ে পদক্ষেপ নিচ্ছে। জাতীয় নারী কমিশনের চেয়ারপারসন রেখা শর্মা জানান, তাঁরা ভিস্তারা এয়ারলাইনসকে একটি অভিযোগ পাঠাবেন। তা ছাড়া মহারাষ্ট্রের পুলিশের ডিজির কাছে সেই এয়ারলাইনসের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করা হবে।

এদিকে ভিস্তারা এয়ারলাইনসের কর্তৃপক্ষ প্রতিষ্ঠানটির অফিশিয়াল টুইটার পেজে আজ রোববার সকালে জানিয়েছে, জাইরার ঘটনার কথা তারা শুনেছে। পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। তাদের পক্ষ থেকে বলা হয়, ‘এই ঘটনা নিন্দনীয়। সব রকমভাবে আমরা জাইরার পাশে আছি।’ হিন্দুস্তান টাইমস