বুড়িগঙ্গার তীর উদ্ধার অভিযানে গুড়িয়ে দেয়া হয়েছে প্রভাবশালীদের দম্ভ (ভিডিও)

0
213

মাহবুব সৈকত :  বুড়িগঙ্গার তীরে বহুতল ভবন নির্মান করায় এলাকাবাসি তাদেরকে প্রভাবশালী ব্যক্তি হিসেবেই জানে। আবার অনেকের তুরাগ তীরে ব্যবসা। অভিযান হলেও বহাল তবিয়তেই থাকে তাদের স্থাপনা। আবার কেউ কেউ নদীর যায়গা দখল করে গড়ে তুলেছে রমরমা হাউজিং ব্যবসা। কিন্তুু এসব স্বার্থান্বেশীদের সব দম্ভ এবার গুড়িয়ে দেয়া হয়েছে।

দনের পর দিন প্রকাশ্যেই এভাবে দখল করা হয়েছে নদী তীরবর্তী স্থান। রাজধানীর প্রান বুড়িগঙ্গা- তুরাগকে রক্ষার জন্য সিমানা পিলার বসানো হলে ও তার কোনটা সরিয়ে আবার কোনটা ডেকে দিয়ে প্রবাহমান নদীকেই সংকুচিত করে কলকারখানা গড়ে তুলেছে প্রভাবশালীরা।

বিষয়গুলো আমাদের চোখে অব্যাহত ভাবে তুলে ধরেছিলো মাইটিভিসহ অন্যন্য গনমাধ্যম। মাঝে মাঝে লোক দেখানো অভিযান আর তাতে কম জোরীদের টং ঘর উচ্ছেদ করা হলেও মুল্লুক অক্ষতই থাকতো প্রভাবশালী চক্রের।

কিন্তু দিন পাল্টেছে, উচ্চ আদালতের নির্দেশনা আর সরকাররের শীর্ষ মহলের ঘোষনায় গুড়িয়ে দেয়া হচ্ছে নদীর যায়গায় গড়ে তোলা অবৈধ স্থাপনা ।

প্রায় দেড় মাস থেকে অব্যাহত ভাবে চলা এ উচ্ছেদ অভিযানের মাঠে থেকে নির্দেশনা দিচ্ছেন বিআই ডব্লিইইউটিএর নির্বাহী ম্যাজিস্টেট মোস্তাফিজুর রহমান।

তবে উচ্ছেদ হওয়া অনেকের রয়েছে ভিন্ন দাবী। গাবতলী সংলগ্ন তুরাগতীর দখল করে এমন কি দখলমুক্ত রাখতে নির্মান করা হাটার পথকে বিনষ্টকরে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান চালানো এই ব্যাক্তিরও রয়েছে আত্মপক্ষ সমর্থন করা বক্তব্য।

সংশ্লিষ্টদের সহযোগীতা থাকলে নদীসহ পরিবেশ সুরক্ষার জন্য কাজ করা সম্ভব বলে মনে করেন সংস্লিষ্টরা। সবার ই কামনা সম্মিলিত প্রচেষ্টার ফিরবে সুদিন।