বেগম জিয়া ছাড়া দেশে আর কোনো নির্বাচন হবে না, হতে দেবো না: ড. মোশারফ

0
62

বেগম জিয়া ছাড়া দেশে আর কোনো নির্বাচন হবে না এবং হতে দেয়া যাবে না। আগামী নির্বাচন নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে হবে বলে হুশিয়ারি দিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশারফ হোসেন।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবে মহিলা দল আয়োজিত ‘বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ৫৩ তম জন্মদিন’ উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা জানান।

মোশাররফ হোসেন বলেন, সরকার বড় গলায় ঘোষণা করেছিল যে, রাজনীতিতে বিএনপির অস্তিত্ব নেই। তবে তারা দেখেছে, বেগম জিয়া দেশে আসার পর রাস্তায় গণজোয়ার, কক্সবাজার ও ১২ নভেম্বরের সমাবেশে জনস্রোত বয়ে গিয়েছিল। বিএনপির প্রতি মানুষের এই সমর্থন দেখে সরকার দিশেহারা হয়ে পড়েছে।

যতই ষড়যন্ত্র করা হোক না কেন, খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে আগামী নির্বাচনে অংশ নেবে বিএনপি। সরকার যদি ৫ জানুয়ারি মতো নির্বাচন করার চেষ্টা করে এবং গায়ের জোরে ক্ষমতায় থাকতে চায় তাহলে জনগণ তাহলে রাস্তায় নেমে তাদের ভোট ও গণতান্ত্রিক অধিকার উদ্ধার করবে।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ সরকার অনেকবার বিএনপিকে ভাঙার চেষ্টা করেছে। ১/১১-তে তারেক রহমানকে জেলে ঢুকিয়ে রিমান্ডের নামে তার মেরুদণ্ড ভেঙে দিয়েছে। খালেদা জিয়াকে জেলে নিয়ে বিএনপিকে দুর্বল করার চেষ্টা করা হয়েছে।

এর ধারাবাহিকতায় সরকার ও তার মন্ত্রীরা খালেদা জিয়াকে রাজনীতি থেকে সরিয়ে দিতে চাচ্ছে। তারেক রহমানকে দেশে ফিরতে দিচ্ছে না। এভাবে বিএনপিকে রাজনীতি শূন্য করার চেষ্টা করে যাচ্ছে আওয়ামী লীগ যোগ করেন তিনি।

আয়োজক সংগঠনের সভাপতি আফরোজা আব্বাসের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন সুলতানা আহমেদ, হেলেন জেরিন খান, শাম্মী আকতার, রাজিয়া বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে ষড়যন্ত্র করে বিএনপিকে দূরে রাখা হয়েছিল। তবে ৫ জানুয়ারি নির্বাচন আর আগামী একাদশ নির্বাচন এক নয়। নদীর পানি অনেক গড়িয়েছে,আলিম প্রমুখ।