বেসিন-টয়লেটে ক্লিনার, ব্লিচিং পাউডার ঢালার বার্তায় ভয়াবহ পরিবেশ বিপর্যয়ের আশঙ্কা

0
200

মুবাল্লিগ করিম : দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে এডিস মশাবাহিত রোগ ডেঙ্গু। অন্যদিকে, বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ছড়িয়ে পড়ছে একটি বিভ্রান্তিকর বার্তা। সেখানে এডিস মশা মারতে একযোগে ব্লিচিং পাউডার বা টয়লেট ক্লিনার বেসিনে ঢালার জন্য রাজধানী বাসিন্দাদের বলা হচ্ছে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এর সঙ্গে বাস্তবতার কোনো মিল নেই বরং হতে পারে পরিবেশ বিপর্যয়।

গতকয়েক দিনে ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিত যোগাযোগ মাধ্যম ছেয়ে গেছে এক বিভ্রান্তিকর বার্তায়। যেখানে বলা হয়, ঢাকায় বসবাসকারী সবাইকে আগামী শুক্রবার জুমার নামাজের পরে প্রত্যেকের বেসিনে ৫০০ গ্রাম এর একটা টয়লেট ক্লিনার বা ৫০০ গ্রাম ব্লিচিং পাউডার ঢেলে পানি দিতে বলা হয়েছে। এতে ঢাকা শহরের শতকরা ৭০ শতাংশ ড্রেন, ডোবা-নালাসহ অন্যান্য স্থানে থাকা মশা এবং এর লার্ভা ধ্বংস হয়ে যাবে।

যারাএই রসায়নের বাস্তবতা উপলদ্ধি করছেন তারা মনে করছেন এ বিষয়টি আরও একটি গুজব, এ বিষয়ে সচেতন হবার আহ্বান জানিয়েছেন তারা।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন স্যুয়ারেজ লাইনে কোনো এডিস মশা থাকে না। সেখানে থাকে কিউলেক্স মশা। আর এই মশা কোনো বড় ক্ষতি বা মহামারি ছড়াচ্ছে না।

ঢাকার বাসিন্দারা একসাথে নর্দমায় হারপিক বা ব্লিচিং পাউডার ব্যবহার করলে কি হতে পারে জানতে চাইলে চিকিৎকরা জানান, এর ফল হবে খুব ভয়ানক। মানুষের ডাইজেস্ট ব্যবস্থাপনারও ক্ষতি করবে এই গন্ধ। সব মিলিয়ে বড় ধরনের পরিবেশ বিপর্যয় হতে পারে।

এদিকে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ মশার বংশ বৃদ্ধি বন্ধ করতে স্বচ্ছ পানি যেন তিনদিনের বেশি কোথাও আটকে না থাকে, সে বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। আর যদি কোন কারনে পাটি আটকে থাকে, তাতে কেরোসিন ঢেলে দেয়ারও পরামর্শ দেন তারা।