বাজে ব্যাটিংয়ে ইনিংস শুরু করলো বাংলাদেশ

0
77

শ্রীলঙ্কাকে প্রথম ইনিংসে ২২২ রানে অলআউট করার পর ব্যাট করছে বাংলাদেশ। তবে প্রথম দুই ওভারেই বাজে ভাবে আউট হয়েছে তামিম ও মুমিনুল। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত তিন উইকেট হারিয়ে ৪৫ রান সংগ্রহ করেছে বাংলাদেশ।

দিলরুয়ান পেরেরার বলে ইমরুল কায়েস মিড অফে পাঠালে রানের জন্য ছুটেন দুই ব্যাটসম্যান। নন স্ট্রাইকার মুমিনুল ছিলেন মন্থর। সুযোগটা নেন ধনঞ্জয়া ডি সিলভা। তার থ্রো ধরে স্টাম্প ভেঙে দেন নিরোশান ডিকভেলা।

সে সময়ে মুমিনুলের ব্যাট ভেতরেই ছিল কিন্তু মাটিতে ছোঁয়াননি তিনি। ক্রিকেটের বেসিক না মেনে রান আউট হন দৃষ্টিকটুভাবে।

চার মেরে ফিরে গেলেন তামিম ইকবাল। ফিরতি ক্যাচ নিয়ে প্রথম ওভারেই আঘাত হানলেন সুরঙ্গা লাকমল।

আগের বলেই ড্রাইভ করে চার পেয়েছিলেন তামিম। পরের বলে একই চেষ্টা করেছিলেন তিনি। টাইমিং করতে পারেননি। নিচু হয়ে এক হাতে ক্যাচ নেন বোলার লাকমল। ৪ রান করে ফিরেন তামিম।

আগের ইনিংসে চট্টগ্রামে রান উৎসবের টেস্টে একমাত্র ইনিংসে ৯ উইকেটে ৭১৩ রানে প্রথম ইনিংস ঘোষণা করেছিল শ্রীলঙ্কা। ঢাকা টেস্টে তাদের প্রথম ইনিংস গুটিয়ে গেল ২২২ রানে। ইনিংস টিকল ৬৫.৩ ওভার।

তিন বাঁহাতি গুঁড়িয়ে দেন লঙ্কানদের। উইকেট থেকে বেশ সহায়তা পাওয়া দুই বাঁহাতি স্পিনার আব্দুর রাজ্জাক ও তাইজুল ইসলাম নেন চারটি করে উইকেট। বাঁহাতি মুস্তাফিজুর রহমানের শিকার দুটি।

চার বছর পর টেস্ট খেলতে নেমে ফেরাটা রাঙিয়েছেন রাজ্জাক। করেছেন ক্যারিয়ার সেরা বোলিং। আগের সেরা (৩/৯৩) ছাড়িয়ে ৬৩ রানে নিয়েছেন ৪ উইকেট।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

শ্রীলঙ্কা ১ম ইনিংস: ৬৫.৩ ওভারে ২২২ (মেন্ডিস ৬৮, করুনারত্নে ৩, ডি সিলভা ১৯, গুনাথিলাকা ১৩, চান্দিমাল ০, সিলভা ৫৬, ডিকভেলা ১, দিলরুয়ান ৩১, দনঞ্জয়া ২০, হেরাথ ২, লাকমল ৪*; মিরাজ ১৩-০-৫৪-০, রাজ্জাক ১৬-২-৬৩-৪, তাইজুল ২৫.৩-২-৮৩-৪, মুস্তাফিজ ১১-৪-১৭-২)