ভারতের চেয়ে পাকিস্তানের নাগরিকরা খোলা জায়গায় বেশি মলত্যাগ করে

0
65

সীমান্ত থেকে খেলার মাঠ। কোথায় নেই ভারত-পাকিস্তানের দ্বন্দ? তাই বোধহয় খোলা স্থানে মলত্যাগের সমীক্ষায় ভারতকে টপকালো পাকিস্তান। বিষয়টি হাস্যকর হলেও একেবারে বাস্তব সত্য।

এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, ৫ কোটি পাকিস্তানের নাগরিক শৌচালয় ব্যবহার করেন না। এমনকী তাদের বাড়িতেও সেই ব্যবস্থা নেই। যার ফলে লক্ষ লক্ষ পাকিস্তানের নাগরিকরা বছরে বিভিন্ন পানিবাহিত রোগে আক্রান্ত হয়। এই কারণে পাকিস্তান শিশু মৃত্যুর হারে দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলির মধ্যে দ্বিতীয় স্থানে পৌঁছেছে।

তবে এই স্থান অধিকার করে রেখেছিলো ভারত। এবছরই সমীক্ষায় ভারতকে ছাড়িয়ে গেল পাকিস্তান।

এদিকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি স্বচ্ছ ভারত অভিযান নিয়ে নাগরিকদের সচেতন করতে উদ্যোগী হওয়ায় মুক্ত আকাশের নীচে মলত্যাগ করার হার বেশ খানিকটা কমেছে। এই হারটাই এখন বেশি পাকিস্তানে। পাকিস্তানের করাচি, লাহোরে এই সংখ্যা সবচেয়ে বেশি বলে সমীক্ষায় উঠে এসেছে।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের রিপোর্ট অনুযায়ী পাকিস্তানসহ চীন, নাইজেরিয়া, ইন্দোনেশিয়া, রাশিয়া, দ্য ডেমোক্রেটিক রিপাবলিক অফ কঙ্গো, ব্রাজিল এবং ইথোওপিয়া খোলা আকাশের নীচে মলত্যাগ করার তালিকায় রয়েছে। ‌‌