ভার্চুয়াল জগতের আসক্তি পরিনত হচ্ছে মানসিক ব্যাধিতে

0
419

মুবাল্লিগ করিম : প্রযুক্তির উৎকর্ষতার এই যুগে মানুষের জীবনের এক গুরুত্বপূর্ন অংশ হয়ে উঠছে ভার্চুয়াল জগত। আর এই জগতের আসক্তি নিয়ে নিচ্ছে দিনের গুরুত্বপূর্ণ সময়। এর ফলে অনেকেই আক্রান্ত হচ্ছেন মানসিক ব্যাধিতে।

এমন অনেক মানুষ আছেন যারা সারাক্ষণ ইন্টারনেটে ব্যস্ত না থাকতে পারলে প্রাণটা যেন বেড়িয়ে যায়। মোবাইল ফোনে খেলা, কার্টুন দেখা, মুভি দেখা বা চ্যাটিংই যেন তাদের দৈনন্দিন রুটিন। তবে নেটের দুনিয়ায় সার্বক্ষণিক ব্যস্ত অনেকের মেজাজ বড্ড খিটমিটে হয়ে যায় অনেক সময়। অল্পতেই রেগে যায় তারা। হতে হয় চিকিৎসকের শরণাপন্ন।

এসব সমস্যা মাথায় রেখে ২০১৮ সালের জানুয়ারি মাসে ডি এডিকশন ক্লিনিক আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের যাত্রা শুরু করে। এটি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালের বহির্বিভাগের মানসিক স্বাস্থ্য বিভাগের একটি অংশ। হাসপাতালের ই ব্লকের ৬ষ্ঠতলায় ৬০৮ নম্বর কক্ষে প্রতি সোমবার ‘ডিঅ্যাডিকশন ক্লিনিকের’ আওতায় রোগীদের চিকিৎসা ও কাউন্সেলিং দেয়া হয়। টিকিট মাত্র ৩০ টাকা।

চিকিৎসরা জানান দিন দিন ইন্টারনেটের প্রতি অস্বাভাবিক আসক্তি বাড়ছে। ফলে সৃষ্টি হচ্ছে নতুন নতুন মনোরোগ।

তাদের মতে এ ধরনের সমস্যার ক্ষেত্রে বয়স্কদের থেকে কমবয়সী রোগীদের সংখ্যাই তুলনামূলকভাবে বেশি।

এখন পর্যন্ত ইন্টারনেটের উপর এই আসক্তি রোগ হিসেবে না গণ্য হওয়ায় এর চিকিৎসাও সবজায়গায় সহজে পাওয়া যাচ্ছেনা বলে বাড়ছে এর ভয়াবহতা।