মিয়ানমারে আবারও ক্ষমতায় আসছে সু চির দল

0
212

মিয়ানমারে আবারও ক্ষমতায় এসেছে অং সান সু চির দল ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসি (এনএলডি)। শুক্রবার ঘোষিত ফল অনুযায়ী এনএলডি পেয়েছে ৩৪৬ আসন। সরকার গঠনের জন্য তাদের প্রয়োজন ছিল ৩২২ আসন। ভোট গণনা এখনও শেষ হয়নি। এখনও ৬৪ আসনের ফল ঘোষণা হয়নি।

এর আগে বৃহস্পতিবার প্রাথমিক ফলাফলের ওপর ভিত্তি করে সু চি তার দলকে বিজয়ী বলে দাবি করেছিলেন। তবে সেনা সমর্থিত বিরোধী দল পুনর্নির্বাচন দাবি করেছে।

এনএলডির মুখপাত্র মনিওয়া অং শিন জানিয়েছেন, ‘একক সংখ্যাগরিষ্ঠ’ বিজয়ে এটাই প্রমাণিত হয়েছে জনগণ দলকে সমর্থন দিচ্ছে। তবে এরপরও এনএলডি জাতীয় ঐক্যের সরকার গঠন করবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

এনএলডি জানিয়েছে, তারা জাতিগত সংখ্যালঘুদের দলগুলোকে তাদের সঙ্গে কাজ করার আমন্ত্রণ জানাবে। এর আগের অর্থাৎ ২০১৫ সালের নির্বাচনে অবশ্য এ ধরনের আমন্ত্রণ জানানো হয়নি।

ইতোমধ্যে ভারত, জাপান ও সিঙ্গাপুর পৃথক বার্তায় সু চিকে বিজয়ের জন্য অভিনন্দন জানিয়েছে।

২০১১ সালে দেশটিতে সেনাশাসনের অবসান ঘটে এবং গণতন্ত্রের যাত্রা শুরু হয়। এরপর দ্বিতীয়বারের মতো দেশটিতে রবিবার সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

মিয়ানমারের পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষে ৪২৫ ও উচ্চকক্ষে ১৬১ আসন রয়েছে। ৫০ বছরের বেশি সময়ের সেনাশাসনের কবল থেকে মুক্ত হয়ে ২০১৫ সালে দেশটিতে প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত সাধারণ নির্বাচনে সু চির দল ভূমিধস জয় পায়। সে বছর দলটি সংসদের মোট ৩৯০ আসনে বিজয়ী হয়। তবে এবার বেশ কিছু আসন হারাতে হয়েছে তাদের।

বিদেশি নাগরিকের সঙ্গে বিয়ে হওয়ায় ২০১৫ সালের নির্বাচনে জয়ী হয়েও দেশটির প্রধানমন্ত্রী হতে পারেননি সু চি। একই কারণে এবারও তিনি জয়ী হলে প্রধানমন্ত্রী হতে পারবেন না। বর্তমানে এই নেত্রী ‘স্টেট কাউন্সিলর’ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।